ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে ক্যাম্পেইন করবে দারাজ

0

মিরাজুল ইসলাম জীবন, টেকজুম ডটটিভ// দেশের সবচেয়ে বড় অনলাইন শপিং প্ল্যাটফর্ম দারাজ ডটকমডটবিডি সম্প্রতি তৃতীয়বারের মতো আয়োজন করছে বছরের সবথেকে বড় সেলস ইভেন্ট ফাটাফাটি ফ্রাইডে। এবারের ইভেন্ট সফল হয়েছে বলে জানিয়েছেন দারাজ বাংলাদেশ লিমিটেডের ম্যানেজিং ডিরেক্টর সৈয়দ মোস্তাহিদল হক।

তিনি বলেন, ‘আয়োজনে ক্রেতা গ্রাহকদের বেশ ভাল রেসপন্স ছিল। পুরো ইভেন্ট ক্রেতাদের উপস্থিতিতে বেশ প্রাণোবন্ত ছিল। এতে আমরা খুব আনন্দিত। এজন্য ফাটাফাটি ফ্রাইডের সময় বাড়ানো হয়েছে। এর পার্টনারদের সাথে আলোচনা করে ইভেন্টে পণ্যের উপর ডিসকাউন্টের পরিমাণও বৃদ্ধি করা হয়েছে, যাতে ইভেন্টে আসা ক্রেতারা আরও কিছুদিন এই অফারের সুবিধা উপভোগ করতে পারেন।’

এই ক্যাম্পেইনে ক্রেতারা ৭৫% মূল্যছাড়ে পছন্দের পণ্য কিনেছেন। এছাড়াও ছিল নানান ধরণের আকর্ষণীয় মেগা অফার। ক্যাম্পেইনটি ছিল ২৭ নভেম্বর পর্যন্ত।

যে টার্গেট নিয়ে ইভেন্টের আয়োজন করেছেন তা কতাটা পূরণ হয়েছে এমন প্রশ্নের জবাবে সৈয়দ মোস্তাহিদল হক টেকজুমডটটিভিকে বলেন, ‘এ মসের সাতাশ তারিখ পর্যন্ত আমাদের যে টার্গেট বা লক্ষ্য ছিল তা খুব ভালভাবে পূরণ হয়েছে। আমাদের আরও অনেক লক্ষ্য আছে তা পূরণের জন্য আরও এগিয়ে যেতে চাই। ইভেন্টে অনেক ক্রেতাই তার পছন্দের পণ্যটি সংগ্রহ করতে পারেননি, কারণ আমাদের স্টক বা মজুদ শেষ হয়ে গিয়েছিল। অনেক ক্রেতাই পণ্যের উপর ডিসকাউন্ট আরেকটু বেশি আশা করেছিলেন। এজন্য অনেক ক্রেতাই পণ্য ক্রয় করেনি বা করতে পারেনি। তাদের কথা মাথায় রেখে পণ্যের দাম যেমন কমানো হয়েছে এবং এর উপর ডিসকাউন্টের পরিমাণও বাড়ানো হয়েছে। শুধু তাই নয়, যেসব পণ্যের স্টক শেষ হয়ে গিয়েছিল পুনরায় তার স্টক বাড়ানো হয়েছে, যাতে ক্রেতা তার পছন্দের পণ্যটি সংগ্রহ বা ক্রয় করতে পারেন।’

অনেক গ্রাহক অভিযোগ করেছেন যে, তাঁরা তাঁদের পণ্য সঠিকভাবে সঠিক সময়ে হাতে পায়নি, এ ব্যাপারে মতামত জানতে চাইলে দারাজের ম্যানেজিং ডিরেক্টর বলেন, ‘ফাটাফাটি ফ্রাইডে শুরু করার আগেই এই বিষয়টি আমাদের মাথায় ছিল। আমাদের লক্ষ্য ছিল যত দ্রুত সম্ভব ক্রেতার হাতে যেন তার কাঙ্খিত পণ্যটি পৌঁছে যায়। এজন্য আমরা আমাদের ডেলিভারি ক্যাপাসিটি ৩০ শতাংশ বেশি রেখেছিলাম। সাধারণত নিয়মানুযায়ী আমাদের লক্ষ্য থাকে পণ্যের অর্ডার নেয়ার পর চারদিনের মধ্যে পণ্য যেন ক্রেতার হাতে পৌঁছে যায়। এই নিয়ম মানা হয় বাংলাদেশের যেকোন স্থানে পণ্য পৌঁছানোর জন্য। কিছু অর্ডারের ক্ষেত্রে অনেক সময় দেরি হয়ে যায়, যখন ডেলিভারি বয় অসুস্থ থাকেন বা কাজে আসেন না। এক্ষেত্রে অনেক সময় গ্রাহক অভিযোগ করতে পারেন। তবে এখনও আমরা বড় ধরণের কোন অভিযোগ পাইনি। যা পেয়েছি তা এক শতাংশেরও কম। আমরা এসব নিয়ে কাজ করছি, যার ফলাফল খুব দ্রুতই পাওয়া যাবে আশা করছি।’

ভবিষ্যতে আরও এমন আরও ক্যাম্পেইন করার ইচ্ছা প্রকাশ করে তিনি বলেন, ‘ডিসেম্বরের ১২ তারিখের পর একটি ক্যাম্পেইন করার ইচ্ছা আছে। এটি মূলত ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে স্কুলভিত্তিক হবে। শিক্ষার্থীরা নতুন বছরে তাদের যত ধরণের শিক্ষা উপকরণ প্রয়োজন তাই নিয়ে এই ক্যাম্পেইন হবে। এছাড়া হ্যাপি নিউ ইয়ার উপলক্ষেও অনেক পণ্য থাকবে এতে। আগামী বছর ২০১৮ সালে ফেব্রুয়ারি মাসে বিশ্ব-ভালবাসা দিবস উপলক্ষেও একটি ক্যাম্পেইন করার প্রস্তুতি আছে আমাদের। আমরা আশা করি এব্যাপারে ক্রেতা গ্রাহকরা আমাদের পাশে থেকে ক্যাম্পেইন সফল করতে সহযোগিতা করবেন এবং ভবিষ্যতে আরও ক্যাম্পেইন করতে উৎসাহ প্রদান করবেন।’

টেকজুমটিভি/এমআইজে

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন