‘অ্যাসোসিও অ্যাওয়ার্ড’ নিতে তাইওয়ানের পথে বিসিএস

0

তথ্যপ্রযু্ক্তি প্রতিবেদক, টেকজুম ডটটিভি//  বিশ্ব আইটি সম্মেলন ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস অন ইনফরমেশন টেকনোলজিতে (ডব্লিউসিআইটি) অংশ নিতে ঢাকা ত্যাগ করেছে বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির (বিসিএস) একটি প্রতিনিধি দল। ১০ সেপ্টেম্বর থেকে চার দিনব্যাপী তথ্যপ্রযুক্তির এই আসর বসছে তাইওয়ানের তাইপে। এবারের এই সম্মেলনের বিষয় হচ্ছে ‘ডিজিটাল যুগের প্রতিজ্ঞা পূরণ: ডিজিটাল স্বপ্নে বসবাস’। সম্মেলনের অংশ হিসেবে ‘অ্যাসোসিও আইসিটি সামিট ২০১৭’ এবং ‘৩৫তম অ্যাফ্যাক্ট প্লেনারি মিটিংয়ের আয়োজন করা হয়েছে।

বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানিয়েছে, সম্মেলনে যোগদানের জন্য বিসিএস-এর উদ্যোগে সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ের অর্ধশতাধিক সদস্যদের নিয়ে উচ্চ পর্যায়ের প্রতিনিধিদল তাইওয়ানের উদ্দেশ্যে ঢাকা ত্যাগ করেছে। প্রতিনিধিদলে রয়েছেন ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগের প্রতিমন্ত্রী তারানা হালিম, বিসিএস সভাপতি আলী আশফাকসহ তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ, ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ এবং বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাবৃন্দ, বিসিএস-এর কার্যনির্বাহী কমিটির সদস্যবৃন্দ, আইসিটি ব্যবসায়ীসহ অন্যান্যরা।

বিশ্বের ৮০টিরও বেশি দেশের প্রায় তিন সহস্রাধিক নীতিনির্ধারক, তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তিবিদ, ব্যবসায়ী, উদ্যোক্তা, সরকারি কর্মকর্তা ও তরুণ প্রজন্মের প্রতিনিধিবৃন্দ বিশ্বসেরা এসব সম্মেলনে যোগদান করবেন। তারা সর্বশেষ প্রযুক্তি ও ব্যবসায়ের নতুন-নতুন উদ্ভাবনী পণ্য ও ক্ষেত্র, চিন্তা, মতামত, নতুন পরিষেবা সৃষ্টি এবং সিদ্ধান্ত গ্রহণ ও নীতিমালা প্রণয়ের লক্ষে বহুমাত্রিক অনুষ্ঠান ও প্রদর্শনীতে অংশগ্রহণ করবেন।

এই সম্মেলনে বিভিন্ন ক্যাটেগরিতে প্রযুক্তি ও ব্যবসা-বাণিজ্যে সফলতা ও অর্জনের স্বীকৃতিস্বরূপ বিশ্বব্যাপী উন্মুক্ত প্রতিযোগিতা ও যাচাই-বাছাইয়ের মাধ্যমে সর্বোত্তম প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিদেরকে পুরস্কার দেয়া হবে। ইতোমধ্যে অ্যাসোসিও কর্তৃক ঘোষিত ফলাফলে এ দেশের সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ের চারটি প্রতিষ্ঠান বিভিন্ন ক্যাটেগরিতে মর্যাদাপূর্ণ ‘অ্যাসোসিও অ্যাওয়ার্ড’ বিজয়ী হয়েছে। তাছাড়া, ‘উইটসা অ্যাক্সেলেন্স অ্যাওয়ার্ডস’ এবং অ্যাফ্যাক্ট কর্তৃক প্রবর্তিত ‘ই-এশিয়া অ্যাওয়ার্ডস’-এর বিভিন্ন ক্যাটেগরিতে প্রতিযোগিতার চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে বাংলাদেশের আরও বেশ কয়েকটি প্রতিষ্ঠান।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি (বিসিএস) দেশের একমাত্র সংগঠন, যেটি ১৯৯৬ সাল থেকে অ্যাসোসিও এবং ১৯৯৮ সাল থেকে ইউটসা’র প্রভাবশালী সক্রিয় সদস্য হিসেবে তথ্যপ্রযুক্তিতে বিশ্বব্যাপী বিভিন্ন কর্মকাণ্ডে অংশগ্রহণ ও আয়োজন করে আসছে। তাছাড়া, বিসিএস-এর বর্তমান সভাপতি আলী আশফাক বাংলাদেশে অ্যাফ্যাক্ট-এর হেড অব ডেলিগেশন হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। বিশ্ব তথ্যপ্রযুক্তি কর্মকাণ্ডে বিসিএস-এর এই দৃপ্ত পদচারণার স্বীকৃতিস্বরূপ ২০২১ সালে বাংলাদেশ হোস্ট কান্ট্রি হিসেবে বিশ্ব আইটি সম্মেলন (ডব্লিউসিআইটি ২০২১) আয়োজন করবে।

টেকজুম ডটটিভি/৯ সেপ্টেম্বর/এসআর

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন