অ্যাপলের ‘১৯৮৪’ নিয়ে এইচটিসির রসিকতা

0

নিউজ ডেস্ক, টেকজুম ডটটিভি// প্রতিদ্বন্দ্বীতায় টিকতে না পেরে মনের ক্ষোভ ঝাড়তে বা আইফোন নকলের দোষ এড়াতে, সমালোচকদের চোখে কারণ যাই হোক না কেন মার্কিন প্রতিষ্ঠান অ্যাপলের পিছু যেন ছাড়ছেই না তাইওয়ানিজ স্মার্টফোন নির্মাতা এইচটিসি। বলা হচ্ছে, এবার অ্যাপলের বানানো বিখ্যাত টিভি বিজ্ঞাপন ‘১৯৮৪’-এর আদলে এইচটিসি ওয়ান এ৯ স্মার্টফোনের বিজ্ঞাপন বানিয়ে অ্যাপলকে নতুন করে ‘খোঁচা’ দেওয়ার চেষ্টা করেছে প্রতিষ্ঠানটি।

সময়টা ছিল ১৯৮৪ সাল, বিশ্বব্যাপী আধিপত্য বিস্তার নিয়ে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র আর সোভিয়েত ইউনিয়নের শীতল যুদ্ধ তখন চলছে। আর প্রযুক্তি বিশ্বে তখন চলছে আইবিএমের আধিপত্য। ১৯৮৪ আর ১৯৮৪ থাকবে না- এমন এক বার্তায় ম্যাকিনটশ কম্পিউটারের বিজ্ঞাপন বের করে আইবিএমের আধিপত্যের জগতে ফাটল ধরানোর ঘোষণা দেয় অ্যাপল।

অ্যাপলের সেই ‘বিগ ব্রাদার’ বিজ্ঞাপনকে বলা হয় বিজ্ঞাপনের ইতিহাসে সবচেয়ে প্রভাবশালী বিজ্ঞাপনগুলোর একটি হিসেবে।

এবার হয়তো সেই বিজ্ঞাপনের অনুকরণ করে প্রযুক্তিবিশ্বের অ্যাপল আধিপত্যে চিড় ধরাতে চেয়েছে এইচটিসি। তবে বিজ্ঞাপনটি কী ভাবে নির্মাতাদের মাথায় এল, আর কেনই বা তারা একে উৎসাহমূলক আর ব্যাতিক্রমী বলছে তার উত্তর খুঁজে পাওয়া দুষ্কর বলে জানিয়েছে প্রযুক্তিবিষয়ক সাইট সিনেট।

এইচটিসির এই বিজ্ঞাপনের থিম হচ্ছে ‘বি ডিফরেন্ট, বি লাউড’ বা ব্যাতিক্রমী হও, উচ্চস্বর হও। কিন্তু বিজ্ঞাপনটি দেখার পর তা ব্যাতিক্রমী নয় বরং নিছক স্পর্শহীন মনে হচ্ছে। এইচটিসি চমৎকার কিছু স্মার্টফোন বানালেও মানুষের মন ছুঁয়ে একটি ব্র্যান্ড ইমেইজ তৈরি করতে তাদের বেগ পেতে হচ্ছে, এমনটাই জানিয়েছে সাইটটি।

এর আগে ২০১১ সালে মোবাইল ফোন নির্মাতা প্রতিষ্ঠান মটোরোলাও অ্যাপলের ওই বিজ্ঞাপন নিয়ে হাস্যরসের চেষ্টা করে একটি ট্যাবলেট বের করতে চেয়েছিল। যদিও মটোরোলার বিজ্ঞাপনটি মার্জিতভাবে বানানো ছিল, তাও তা খুব শিগগির সবার অগোচরে চলে যায় সেটি।

প্রযুক্তি বিশ্বের অ্যাপলের প্রভাব চোখে পড়ার মতই। অন্য কোনো প্রতিদ্বন্দ্বী প্রতিষ্ঠান যদি এ প্রভাব নষ্ট করতে চায়, তবে তা প্রযুক্তি বাজারের প্রতিযোগিতা বাড়াতে অবশ্যই সহায়ক হবে। কিন্তু এক্ষেত্রে পদক্ষেপগুলো মানসম্পন্ন ও মনে রাখার মতো হওয়া উচিত বলে মন্তব্য করেছে সিনেট।

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন