সেলফি তুলতে গিয়ে ট্রেনের ধাক্কায় মৃত ছাত্র

0

নিজস্ব প্রতিবেদক, টেকজুম ডটটিভি// শুক্রবার রেললাইনের ধারে দাঁড়িয়ে মোবাইলে সেলফি তুলতে গিয়ে প্রাণ গেল কল্যাণী কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র সৌরভ দে’র (২১)।

শুক্রবার দুপুরে কল্যাণীর শিল্পাঞ্চল ও ঘোষপাড়া রেল স্টেশনের মাঝে ঘটনাটি ঘটে। আহত হয়ে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন সৌরভের বন্ধু অভিষেক রায়। দুজনেরই বাড়ি শ্যামনগর কাউগাছির রামমোহন পল্লীতে। প্রথম বর্ষের পরীক্ষার জন্য কলেজে রেজিস্ট্রেশন ফর্ম পূরণ করতে গিয়েছিলেন ওঁরা। কিন্তু জীবনের পরীক্ষাতে আর ঠিকঠাক উতরানো হলো না সৌরভের। দুর্ঘটনার খবর জানানো হলেও সৌরভের মাকে চরম দুঃসংবাদটি দিতে পারেননি প্রতিবেশীরা। বার বার তিনি বলছেন, বাড়ি ফিরলে বলে দেব, ও আর যেন মোবাইলে নিজের ছবি না তোলে।

বৃহস্পতিবারই অভিষেকের রেজিস্ট্রেশন ফর্ম পূরণ হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু প্রিয় বন্ধুর জন্য তিনি আজও কলেজে গিয়েছিলেন। লেখাপড়ার পাশাপাশি কেবল টিভি লাইনের কাজও করতেন সৌরভ। বছরখানেক আগে পাড়ারই মেয়ে পাপিয়ার সঙ্গে বিয়ে হয় তাঁর। কথা ছিল, কলেজের কাজ তাড়াতাড়ি শেষ করে শ্যামনগরে ফিরবে। পৌনে ২টা নাগাদ স্ত্রীকে সে কথা জানিয়েছিলেনও। আর তার পরই ঘটে যায় ভয়ংকর সেই ঘটনা। প্রত্যক্ষদর্শী ছিলেন ওই কলেজেরই কয়েকজন ছাত্র।

এলাকার বাসিন্দারা জানিয়েছেন, ক্লাস নাইন থেকেই মোবাইলের নেশা সৌরভের। কেতাদুরস্ত পোশাক আর মোবাইলই ছিল তাঁর নেশা। বন্ধুদের বলেছিলেন, চলন্ত ট্রেনের সামনে লাইনে শুয়ে সেলফি তুলতে চান তিনি। কল্যাণীতে এ দিন তারই কি মহড়া দিচ্ছিলেন সৌরভ? এ প্রশ্ন তাঁর বন্ধুদের। এ বছরের শুরুতে মুম্বাইয়ে ট্রেনের ছাদে উঠে সেলফি তুলতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে প্রাণ গিয়েছিল গণেশ কুমকুমওয়াতির। এ মাসের চার তারিখে মুম্বাইতেই বাবার কাছ থেকে উপহার পাওয়া মোবাইল দিয়ে একইভাবে সেলফি তুলতে গিয়ে তড়িতাহত হয়ে প্রাণ যায় ১৪ বছরের এক স্কুলছাত্রের। সেলফির নেশা মানসিক বিকার কিনা, তা নিয়ে ইতিমধ্যেই বিদেশে গবেষণা শুরু হয়ে গিয়েছে। রাশিয়ার মতো কয়েকটি দেশ ইতিমধ্যে স্কুলগুলিতে সেলফি-সচেতনতার কর্মশালা শুরুও করেছে। এ দেশেও যে কিশোর-তরুণদের সতর্ক করার প্রয়োজন হয়ে পড়েছে, তা আরও একবার স্পষ্ট হলো।

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন