তথ্যপ্রযুক্তি ডেস্ক, টেকজুম ডটটিভি// টেকসই উন্নয়ন লক্ষমাত্রা ২০১৭-এর জন্য জাতিসংঘের পুরষ্কারে ভূষিত হয়েছেন মাইক্রোসফট বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক সোনিয়া বশির কবির।  জাতিসংঘের টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্র অর্জনে ব্যবসায়িক কমিউনিটিকে যোগ্য নেতৃত্বদানকারী হিসেবে তাকে এ পুরষ্কার দেওয়া হচ্ছে।

আগামী ২১ সেপ্টেম্বর ইউনাইটেড ন্যাশনস গ্লোবাল কম্প্যাক্ট লিডারস সামিট ২০১৭ সম্মেলনে সোনিয়া বশির কবিরকে ‘ইউএন গ্লোবাল কম্প্যাক্ট লিডারস’ পুরস্কার দেবে সংস্থাটি। বিশ্বব্যাপী ১০ জনকে চলতি বছরে পুরস্কারটি দেওয়া হচ্ছে।

ইউএন গ্লোবাল ইম্প্যাক্ট প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা এবং নির্বাহী পরিচালক লিজ কিংগো বলেন, ‘ইতিবাচক পরিবর্তনের জন্য কিভাবে বিভিন্ন সমস্যা যেগুলোর সম্মুখিন আমাদের বর্তমানে হতে হচ্ছে সেগুলো থেকে মুক্তি পেতে প্রতিটি এসডিজি ২০১৭ নেতৃত্বদানকারীদের প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিগতভাবে নেতৃত্ব দান চালিকাশক্তি হিসেবে কাজ করেছে। তথ্য-প্রযুক্তিতে নারীর অংশগ্রহণে সোনিয়া বশির কবির হলেন বেশ প্রতিভাসম্পন্ন একজন নারী। ডিজিটাল স্বাক্ষরতা সম্পর্কিত বিভিন্ন প্রশিক্ষণের মাধ্যমে তিনি তথ্য-প্রযুক্তিতে নারীদের নেতৃত্ব দিয়ে যাচ্ছেন।’

নারীদের ডিজিটাল শিক্ষার ক্ষমতায়নে ভূমিকা রাখায় সোনিয়া বশির কবিরকে সম্মানসূচক এ পুরস্কারের জন্য নির্বাচিত করা হয়েছে। তিনি বিশ্বাস করেন, প্রযুক্তি যে কোনো উন্নয়নশীল দেশকে অর্থনৈতিকভাবে দ্রুতগতিতে সামনে দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে সহায়তা করে। ১৬ কোটি মানুষের বাংলাদেশে শতকরা ৫০ ভাগ নারী। আর এ নারীরা দেশের অগ্রগতিতে শক্তিশালী হাতিয়ার।

নারীদের ডিজিটাল শিক্ষাদানের লক্ষ্যে প্রশিক্ষণের আয়োজন করেছে মাইক্রোসফট বাংলাদেশ। বিশ্বব্যাপি আমাদের প্রচেষ্টার গ্রহণযোগ্যতা, কৃতজ্ঞতা ও চাহিদা তৈরি হওয়ায় আমরা বেশ উচ্ছসিত, একই সঙ্গে ক্ষমতায়ন ও উদ্যোক্তা তৈরির লক্ষ্যে প্রশিক্ষণের মাধ্যমে শিক্ষাব্যবস্থাকে আরো পেশাদার উপায়ে সাজানোর ব্যাপারে আমরা দৃঢ়-প্রতিজ্ঞ। নারীদের ডিজিটাল শিক্ষায় শিক্ষিত করে তথ্য-প্রযুক্তি বিষয়ক ব্যবসার প্রতি উদ্বুদ্ধ করার ক্ষেত্রে আমরা সফলতার মুখ দেখেছি। সরকারের সহযোগিতায় আগামি বছরের মধ্যে বাংলাদেশের ডিজিটাল অভ্যুথ্যানে নারীদের অংশগ্রহণ ব্যাপক হারে বৃদ্ধি পাবে বলে আশাবাদ ব্যক্ত করেছেন সোনিয়া বশির কবির।

প্রতিবছর এসডিজি নেতৃত্বদানকারীদের একটি দলকে নিয়ে বিশেষ দিন উদযাপন করে ইউএন গ্লোবাল কম্প্যাক্ট। বৈশি^ক লক্ষমাত্রা অর্জনের লক্ষে এসকল ব্যবসায়িক নেতৃত্বদানকারীরা অসাধারন কর্ম সম্পাদনের মাধ্যমে সংশ্লিষ্ট খাতকে কয়েক ধাপ এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। পুরো বিশ^ থেকে শতাধিক মনোনয়নকারী থেকে মূল ১০জনকে নির্বাচিত করা হয়েছে। বৈশি^ক সামাজিক সমস্যা সমাধানে ব্যবসায়িক প্রতিষ্ঠানগুলো কিভাবে ভূমিকা রাখতে পারে তা কাজের মাধ্যমে প্রমাণ করেছে নির্বাচিতরা। আগামি ২১ সেপ্টেম্বর, ২০১৭ তারিখে নিউইয়র্কে অনুষ্ঠিতব্য ইউএন গ্লোবাল লিডারস সামিট ২০১৭-তে নির্বাচিতদের বিশেষ সম্মানে ভূষিত করা হবে।

জাতিসংঘ, অ্যাকাডেমিয়া, সিভিল সোসাইটি ও প্রাইভেট সেক্টরের বিশেষজ্ঞদের নিয়ে গঠন করা হয়েছে নির্বাচন পর্ষদ, যারা বিভিন্ন ক্যাটাগরির উপর ভিত্তি করে মনোনিতদের মধ্য থেকে মূল নির্বাচিতদের বাছাই করেছেন। ২০১৭ সালের এসডিজি নির্বাচিতদের সম্পর্কে আরো জানা যাবে এ https://www.unglobalcompact.org/sdgs/sdgpioneers ঠিকানায় গিয়ে।

সম্মাননা প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে সোনিয়া বশির কবির বলেন, “জাতিসংঘের গ্লোবাল কম্প্যাক্ট দল ২০১৭ সালের এসডিজি নেতৃত্বদানকারী হিসেবে আমাকে নির্বাচিত করায় আমি অত্যন্ত সম্মানিত বোধ করছি। প্রযুক্তিতে আমার দেশের নারীদের অনুপ্রাণীত ও সক্ষম করার ব্যাপারে আমি আগ্রহী এবং আমি নিশ্চিৎ যে, অন্যান্য যেকোনো দেশের তুলনায় বর্তমানে মধ্যম আয়ের দেশ বাংলাদেশে তথ্য-প্রযুক্তি খাত আগের চেয়ে অনেক বেশি সুবিধাজনক ও সহযোগিতামূলক পরিবেশ বিরাজ করছে, যা দেশটিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে দ্রুতগতিতে।’

টেকজুম ডটটিভি/১২ সেপ্টেম্বর/এসআর

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন