বিশ্ব আইটি সম্মেলনে পুরস্কার পেয়েছে বিআইটিএম

0

তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিবেদক, টেকজুম ডটটিভি// তাইওয়ানে অনুষ্ঠিত এবারের বিশ্ব আইটি সম্মেলন ওয়ার্ল্ড কংগ্রেস অন ইনফরমেশন টেকনোলজি ২০১৭ এ পুরস্কার জিতেছে বেসিসের সহযোগি প্রতিষ্ঠান বেসিস ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট (বিআইটিএম)। তথ্যপ্রযুক্তি খাতের জন্য দক্ষ জনবল তৈরির ক্ষেত্রে বিশেষ ভূমিকা রাখায় আইসিটি এডুকেশন ক্যাটাগরিতে এই পুরস্কার পেয়েছে বিআইটিএম।

বিশ্ব আইটি সম্মেলন, অ্যাসোসিও আইসিটি সামিট এবং অ্যাফাক্ট প্লেনারি মিটিংয়ে বিআইটিএমসহ বাংলাদেশ আন্তর্জাতিক মর্যাদাপূর্ণ ১০টি পুরস্কার বিজয়লাভ করেছে। এটি তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি খাতে এযাবতকালের মধ্যে দেশের সর্বোচ্চসংখ্যক অর্জন। তাইওয়ানের তাইপে ইন্টারন্যাশনাল কনভেনশন সেন্টারে গত ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৭ সম্মেলনের শেষ দিনে তাইওয়ানের প্রধানমন্ত্রী উইলিয়াম লাই এবং উইটসা চেয়ারম্যান ইভোনি চিউ এর উপস্থিতিতে বিজয়ীদের হাতে এসব পুরস্কার তুলে দেয়া হয়।

উইটসা গ্লোব্যাল আইসিটি এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ডস ২০১৭ মেরিট উইনার্স হয়েছে- বাংলাদেশ পোস্ট অফিস (মোবাইল এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড), ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি (সাসটেইনেবল গ্রোথ অ্যাওয়ার্ড) ও আমরা নেটওয়ার্কস লিমিটেড (প্রাইভেট সেক্টর এক্সিলেন্স অ্যাওয়ার্ড)।

অ্যাসোসিও অ্যাওয়ার্ডস ২০১৭ এ বিজয়ী হয়েছে – বেসিস ইনিস্টিটিউট অব টেকনোলজি অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট (আইসিটি এডুকেশন অ্যাওয়ার্ড), বাংলাদেশ পোস্ট অফিস (ডিজিটাল গভর্নমেন্ট অ্যাওয়ার্ড), আমরা হোল্ডিংস লিমিটেড- উই স্মার্ট সল্যুউশন্স (আউটস্ট্যান্ডিং আইসিটি কোম্পানি অ্যাওয়ার্ড) ও বাংলাদেশ কম্পিউটার কাউন্সিল (আইসিটি এডুকেশন অ্যাওয়ার্ড)।

ই-এশিয়া ২০১৭ অ্যাওয়ার্ডস বিজয়ী হয়েছে- ফাইবার অ্যাট হোম লিমিটেড এর ইনফো-সরকার প্রকল্প (ক্রিয়েটিং ইনক্লুসিভ ডিজিটাল অপরচ্যুনিটি অ্যাওয়ার্ড), বিজনেস অটোমেশন লিমিটেড এর হজ ম্যানেজমেন্ট ইনফরমেশন সিস্টেম প্রকল্প (ওপেন ডিজিটাল গভর্নমেন্ট অ্যাওয়ার্ড) ও বাংলাদেশ পোস্ট অফিসের পোস্টাল ক্যাশ কার্ড : ব্যাংকিং টু দ্য আনব্যাংকড পিপল প্রকল্প (ট্রেড ফ্যাসিলেটেশন অ্যান্ড ই-কমার্স অ্যাওয়ার্ড)।

উল্লেখ্য, বেসিস ২০০৭ সালে দক্ষ মানবসম্পদ তৈরিতে প্রশিক্ষণ শুরু করে। ২০১২ সালে বিআইটিএম প্রতিষ্ঠা করা হয়। এ পর্যন্ত নিজস্ব প্রশিক্ষণ ছাড়াও অর্থ মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন এসইআইপি প্রকল্পের মাধ্যমে প্রায় ১৫ হাজার জনকে প্রশিক্ষণ দিয়েছে বিআইটিএম। প্রশিক্ষণার্থীদের তথ্যপ্রযুক্তির বিভিন্ন বিষয়ে এক থেকে তিন মাস মেয়াদী বিভিন্ন প্রশিক্ষণ দেয়া হয়। এসইআইপি প্রকল্পের আওতায় দ্বিতীয় ধাপে আরও ৩০ হাজার তথ্যপ্রযুক্তি প্রফেশনাল তৈরির কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। বিআইটিএমে প্রশিক্ষণপ্রাপ্তদের চাকরি প্রাপ্তির হার ৬০ শতাংশের বেশি। অবশিষ্টদের অধিকাংশই ফ্রিল্যান্স পেশাজীবি হিসেবে কাজ করছেন।

উপরোক্ত প্রশিক্ষণের পাশাপাশি বেসিস তার সদস্য কো¤পানিগুলোর সাথে যৌথ প্রশিক্ষণ কার্যক্রম চালাচ্ছে। প্রতিষ্ঠানগুলো হলো- হেড ব্লকস, জেনুইটি সিস্টেমস লিমিটেড, বেটার কমিউনিকেশন অ্যান্ড অটোমেশন লিমিটেড, স্টার ককম্পিউটার সিস্টেমস লিমিটেড, ইসফট এরিনা লিমিটেড, ঢাকা সেন্ট্রেনিক আইটি লিমিটেড, অলিভাইন লিমিটেড, ইউওয়াই সিস্টেম লিমিটেড, নেটসফট সল্যুউশন লিমিটেড, বিজনেস অ্যাক্সিলারেট বিডি লিমিটেড, ডাটাপার্ক বিডি লিমিটেড, হিউম্যাক ল্যাব লিমিটেড, লিডস ট্রেনিং অ্যান্ড কনসালটিং, মাইক্রোম্যাক টেকনো ভ্যালি লিমিটেড, মাল্টিমিডিয়া কনটেন্ট অ্যান্ড কমিউনেকশনস লিমিটেড (এমসিসি), সিগমা সিস্টেমস প্রাইভেট লিমিটেড, পিপল এন টেক, টেকনোবিডি ওয়েব সল্যুউশনস প্রাইভেট লিমিটেড, দ্য ক¤িপউটার্স লিমিটেড (ঢাকা), এআরকে টেকনোলজি, বিটবার্ডস সল্যুউশনস, ডেভেলপ আইটি লিমিটেড, প্রাইম টেক সল্যুউশনস লিমিটেড, নেক্সিম, ইউএস সফটওয়্যার লিমিটেড, ন্যানোটেক সল্যুউশন অ্যান্ড কনসালটেন্সি, নিটা সফটওয়্যার লিমিটেড ও ই-সফট।

বিআইটিএমে বর্তমানে ওয়েব ডিজাইন ও ডেভেলপমেন্ট, মোবাইল অ্যাপ্লিকেশন ডেভেলপমেন্ট, ডিজিটাল মার্কেটিং, গ্রাফিক্স ও অ্যানিমেশন, প্রজেক্ট ম্যানেজমেন্ট, সফটওয়্যার টেস্টিং, নেটওয়ার্কিং ও সিকিউরিটি, গেইম ডেভেলপমেন্ট, বিগ ডাটা ও ডাটা ইত্যাদি বিষয়ে প্রায় অর্ধশত প্রশিক্ষণ চালু রয়েছে। আগ্রহীরা বিআইটিএমের ওয়েবসাইট (www.bitm.org.bd) থেকে এসব বিষয়ে বিস্তারিত জানতে ও প্রশিক্ষণের জন্য আবেদন করতে পারবেন।

টেকজুম ডটটিভি/১৪সেপ্টেম্বর/এসআর

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন