স্মার্টফোন ভালো রাখতে যা করা উচিত

0

স্মার্টফোন এখন সবার হাতে হাতে। অস্বীকার করার উপায় নেই যে আমাদের জীবনযাত্রার গুরুত্বপূর্ন একটি অংশ হয়ে উঠেছে এই স্মার্টফোন। আর এই স্মার্টফোন ব্যবহার করতে গিয়ে প্রত্যেকেই কম বেশি সমস্যার মুখোমুখি হন। সচারচর হয়ে থাকে এমন কিছু সমস্যা থেকে দূরে রাখতে আমাদের যা করা উচিৎ:

অনেকেই এক টানা ফোন ব্যবহার করি। কোন রকম রিস্টার্ট বা শাটডাউন দেইনা ফোন কেনার দীর্ঘদিন অতিবাহিত হলেও। এতে অনেক অপ্রয়োজনীয় ডাটা বা ক্যাশ জমা হতে থাকে। ফোন এক্সপার্টরা বলছেন, সপ্তাহে অন্তত একদিন ফোন শাট ডাউন অথবা রিবুট করা উচিত। এতে ফোনের ক্যাশ ক্লিয়ার হয়।

মোবাইল ফোনের শত্রু পানি। বিষয়টি সবারই জানা। অনেকেই তাড়াহুড়া করে ভেজা হাতেই মোবাইল ফোন ধরি। কল রিসিভ করার চেস্টা করি। এটি মোটেও করা উচিৎ নয়। বিশেষ করে ফোনের হোম বাটনে কখনই ভেজা হাত লাগানো উচিৎ না।

ভাইরাস মুক্ত না থাকলে ফোন ব্যবহার করতে গিয়ে নানান ধরণের ঝুঁকিতে, বিড়ম্বনায় পড়তে হতে পারে আমাদেরকে। কোন কম্পিউটারে বা ল্যাপটপে ইউএসবি ক্যাবলের মাধ্যমে ফোন সংযুক্ত করার আগে সতর্ক থাকা উচিৎ তাতে এন্টিভাইরাস আছে কিনা।

অনেকেই বদঅভ্যাস বশত ফোন চার্জে দিয়ে ঘুমিয়ে যাই। এই বদঅভ্যাস টেনে আনতে পারে অহেতুক দুর্ঘটনা। আর ফুলচার্জ হওয়ার পরও চার্জ দেয়া থাকলে তা ফোন ব্যাটারির জন্যও ক্ষতিকর। অবশ্য অনেক ফোনেই ব্যাটারি ফুল চার্জ হয়ে গেল অ্যাডাপ্টার থেকে স্বয়ক্রিয়ভাবে রিচার্জ প্রক্রিয়া বন্ধ হয়ে যায়।

হুটহাট কোন সফটওয়্যার আপডেট বা ইনস্টল করার আগে জেনে নেয়া উচিৎ সেগুলো নিরাপদ কিনা। বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ থার্ড পার্টির অ্যাপস ইনস্টল করার ব্যপারে সতর্ক থাকাটা জরুরি।

ধুলাবালি, ময়লা থেকে দূরে রাখুন আপনার প্রিয় স্মার্টফোনকে। মোবাইলের কভার, স্ক্রিন প্রটেক্টর, গ্লাস প্রটেক্টর ভালমানের ব্যবহার করাই উত্তম। ধুলাবালি, ময়লা থেকে দূরে রাখুন আপনার প্রিয় স্মার্টফোনকে।

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন