পেপাল সেবা চালুর ফলে ৫.৫ লাখ ফ্রিল্যান্সার উপকৃত হবে: পলক

0

বাংলাদেশে পেপাল আসছে না অন্যকিছু এইনিয়ে চলছে নানা বিতর্ক । বাংলাদেশের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ বলছে দেশে পেপাল আসছে আবার পেপাল বলছে তারা বাংলাদেশে আসছে না এইনিয়ে চলছে আলোচনা সমালোচনা ।
বাংলাদেশের তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ থেকে জানিয়েছেন (আইসিটি এক্সপো ২০১৭) দ্বিতীয় দিন পেপাল উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রীর আইসিটি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়।

পেপাল আসা নিয়ে নিজের ফেসবুক ওয়ালে লিখেছেন, আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।তার লেখাটি সম্পূর্ণ তুলে ধরা হল:

বিশ্বের ২০৩টি দেশে পেপ্যাল সেবা চালু আছে। এর মধ্যে মাত্র ২৯টি দেশে পেপ্যালের পূর্ণাঙ্গ সেবা চালু আছে এবং ১০৩টি দেশে শুধু ইনবাউন্ড সেবা চালু রয়েছে।
আর যে সকল দেশে পেপ্যাল পূর্ণাঙ্গ সেবা দিচ্ছে,
তার অধিকাংশ দেশেই পেপ্যাল প্রাথমিকভাবে ইনবাউন্ড সেবা চালুর পরই পর্যায়ক্রমে আউটবাউন্ডসহ পরিপূর্ণ সেবা চালু করেছে।
প্রাথমিকভাবে ইউএসএ থেকে পেপ্যালের একাউন্টধারী যে কোন ব্যক্তি বাংলাদেশে টাকা পাঠাতে পারবেন। আগামী বছর থেকে এ তালিকায় আরও নতুন নতুন দেশ সংযুক্ত হবে।
এর ফলে গ্রাহক ৪০ মিনিটের মধ্যেই গ্রহীতা টাকা গ্রহণ করতে সক্ষম হবে।
প্রতিবার লেনদেনে $ ১,০০০ পর্যন্ত মাত্র $ ৪.৯৯ ফি লাগবে। $ ১,০০০ এর ওপর লেনদেনের ক্ষেত্রে কোন ফি নেই।
প্রতি লেনেদেনে সর্বোচ্চ $ ১০,০০০ পাঠাতে পারবেন।
ফ্রিল্যান্সাররা বর্তমানে প্রায় ১০০ মিলিয়ন ডলার নানাভাবে তাদের উপার্জনকৃত অর্থ বাংলাদেশে নিয়ে আসছে।এই অর্থ নিয়ে আসতে নানা ধরণের সমস্যার ফলে ফ্রিল্যান্সারদের দীর্ঘদিনের দাবি ছিল সরকার যেন তাদেরকে পেপ্যালের মাধ্যমে বিদেশ থেকে অর্থ নিয়ে আসার সুবিধা করে দেয়।
আমরা তাদের দাবি পূরণ করতে পারছি। ফলে, পেপ্যাল সেবা চালুর মাধ্যমে তাদের অর্থ নিয়ে আসা যেমন সহজ হবে, তেমনিভাবে অর্থ নিয়ে আসার হারও কয়েকগুণ বাড়বে।
সোনালী ব্যাংক, রুপালী ব্যাংক, অগ্রণীব্যাংক, জনতা ব্যাংক, উত্তরা ব্যাংক, সিটি ব্যাংক, পুবালী ব্যাংকে প্রাথমিকভাবে এ সেবা চালু হলেও অচিরেই তা অন্যান্য ব্যাংকগুলোতে সম্প্রসারিত হবে।
দেশে পেপ্যাল সেবা চালুর ফলে
৫.৫ লাখ ফ্রিল্যান্সার ও ১ কোটি প্রবাসীর উপকার হবে।

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন