নতুন গেম, খেলতে হবে প্রেমিক-প্রেমিকা কিংবা স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে!

0

টেকজুম ডটটিভি ডেস্ক// মারণ অনলাইন গেম‌ ব্লু হোয়েল‌-এর আতঙ্ক কাটাতে এবার নতুন ধরনের গেম নিয়ে এলো একটি ব্রিটিশ ওয়েবসাইট। এখানেও ব্লু হোয়েলের ধাঁচে প্রতিদিন একটি করে নতুন টাস্ক দেওয়া হবে গেমারদের।

তবে ব্লু হোয়েলের সঙ্গে এই গেমের পার্থক্য তিনটে। প্রথমত, এই গেম একা খেলা যাবে না। খেলতে হবে প্রেমিক-প্রেমিকা কিংবা স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে। দ্বিতীয়ত ব্লু হোয়েলের মতো ৫০ দিন নয়, রেড হোয়েল নামে এই খেলা চলবে ৩০ দিন ধরে এবং ইতিবাচক ভরপুর যৌনতা এই গেমের প্রধান শর্ত।

ওয়েবসাইটটির দাবি, মানসিক অবসাদই ব্লু হোয়েলের মতো গেমের দিকে মানুষকে আকৃষ্ট করে। অবসাদ কাটানোর সেরা ওষুধ যৌনতা। তাই জীবনে ভরপুর যৌনতা আনলে এই অবসাদ কাটানো সম্ভব। ব্লু হোয়েল গেমে নানারকম নৃশংস কাজ করতে হতো ৫০ দিন ধরে। যৌনতার নতুন খেলায় ৩০ দিন ধরে কী করতে হবে?‌ সেটার নির্দিষ্ট তালিকাও দিয়েছে ওয়েবসাইটটি।

দিন অনুযায়ী তুলে ধরা হলো সেই তালিকা :
❏ রাতে শুতে যাওয়ার আগে মিলিত হতে হবে।
❏‌ কামসূত্র অনুযায়ী কয়েকটি বিশেষ ভঙ্গিতে মিলিত হতে হবে।
❏‌ দিনে দুবার মিলিত হতে হবে।
❏‌ মিলনের আগে যৌন উদ্দীপনাময় বই পড়তে হবে একসঙ্গে।
❏‌ স্নানের সময় মিলনের নির্দেশ।
❏‌ স্নানের আগে সঙ্গী বা সঙ্গিনীকে ‌মেসেজ‌ দিতে হবে।
❏‌ ১০ মিনিটের কম সময়ে মিলন সেরে ফেলতে হবে।
❏‌ গাড়ি নিয়ে ঘুরতে বেরিয়ে গাড়িতেই মিলিত হতে হবে।
❏‌ সোফা বা চেয়ারে বসে মিলিত হতে হবে।
❏‌ মিলনের আগে তেল মালিশ করতে হবে।
❏‌ ওরাল‌ পদ্ধতি অবলম্বন করতে হবে।
❏‌ সঙ্গিনীকে মিলনের সময় মুখ্য ভূমিকা পালন করতে হবে।
❏‌ সঙ্গিনীকে তাঁর শরীর ব্যবহার করে উদ্যোগ নিতে হবে যাতে সঙ্গী চরম সুখ পান।
❏‌ বাড়ির মধ্যে এমন কোনো জায়গায় মিলিত হতে হবে যেখানে আগে কখনো মিলিত হননি।
❏‌ নিজেকেই নিজে চরম সুখে পৌঁছে দিতে হবে।
❏‌ কামসূত্রের পরামর্শ নিয়ে কষ্টকর কোনো মিলনভঙ্গি পরীক্ষা করতে হবে।
❏ ‌মিলনের সময় খেলনা ব্যবহার করতে হবে।
❏ একসঙ্গে বসে পর্ন দেখতে হবে।
❏ চরম ঘনিষ্ঠতা ছাড়া মিলিত হতে হবে।
❏ ই-মেইল করে সঙ্গী বা সঙ্গিনীকে জানাতে হবে আপনার যৌন ইচ্ছা।
❏‌ ‌সেক্স টয় পাওয়া যায় এমন একটা দোকানে একসঙ্গে যেতে হবে।
❏‌ চরম ঘনিষ্ঠতা ছাড়াই সঙ্গিনীকে চরম সুখ দিতে হবে।
❏‌ গোটা একটা রাত শুধুমাত্র যৌনতা নিয়ে কথা বলতে হবে এবং বারবার মিলিত হতে হবে। যৌনতার বাইরে অন্য কোনো কথা বলা যাবে না।
❏‌ ডাইস‌, ‌স্পিনারের মতো যৌন উদ্দীপক খেলা খেলতে হবে।
❏‌ শরীরের নিচের অঙ্গকে ব্যবহার করে মিলিত হতে হবে।
❏‌ পুরুষ সঙ্গীকে মিলনের সময় মুখ্য ভূমিকা নিতে হবে।
❏‌ নৈশভোজে গিয়ে টেবিলের তলা দিয়ে বারবার সঙ্গী বা সঙ্গিনীকে স্পর্শ করতে হবে।
❏‌ দিনে একাধিকবার মিলিত হতে হবে।
❏‌ টসের মাধ্যমে দুজনের মধ্যে যেকোনো একজনকে বেছে নিতে হবে। যিনি টসে হারবেন তিনি অপরজনকে জিজ্ঞাসা করবেন যে, তাঁর কাছ থেকে তিনি কী চান?‌

খেলার শেষ দিনের টাস্কও বেশ অভিনব। সে দিন জেগে থাকতে হবে সারা রাত। যতবার সম্ভব মিলিত হতে হবে। যিনি সবচেয়ে বেশিবার মিলিত হতে পারবেন, তিনিই খেলায় বিজয়ী হবেন। সুত্র: কালের কণ্ঠ

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন