বছরজুড়ে গুগলে শীর্ষে ছিলো যেসব ডিভাইস

0

প্রতি বছরই সার্চে শীর্ষে থাকা আলোচিত বিভিন্ন বিষয়ের তালিকা প্রকাশ করে গুগল। নোকিয়া অ্যান্ড্রয়েড স্মাটফোন দিয়ে ২০১৭ সালে ফের আলোচনায় উঠে এসেছে। আর বছরের শেষের দিকে অ্যাপলের আইফোন X এবং ৮ আলোচনায় ছিল।আর তার সাথে পাল্লা দিয়ে পিছিয়ে ছিল স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৮ও এস৮ প্লাস ।

বছরজুড়ে বিশ্বব্যাপী প্রযুক্তি খাতের ভোক্তাপণ্যের মধ্যে কোনগুলো নিয়ে গুগলে বেশি সার্চ করা হয়েছে? এ নিয়ে সেরা ১০ এর তালিকা প্রকাশ করেছে ওয়েব জায়ান্ট প্রতিষ্ঠানটি।

আইফোন ৮
১২ সেপ্টেম্বর নতুন অ্যাপল কার্যালয়ের স্টিভ জবস থিয়েটারে অ্যাপল ইভেন্টে আইফোন ৮ ও ৮ প্লাস উন্মোচন করা হয়। আইফোন ৮ ও আইফোন ৮ প্লাস প্রায় আইফোন ৭ ও আইফোন ৭ প্লাসের মতো। তবে আইফোন ৮ ও ৮ প্লাসে আছে গ্লাস ব্যাক। আইফোন ৮ এ যথারীতি সিঙ্গেল ক্যামেরা আর ৮ প্লাসে রয়েছে ডাবল ক্যামেরা।

আইফোন X
আইফোন ৭এস ও ৭এস প্লাস বাদ দিয়ে নতুন আইফোন ৮ ও ৮ প্লাস উন্মোচন করেছে অ্যাপল। এর পাশাপাশি আইফোনের দশ বছরপূর্তি উপলক্ষ্যে নতুন আইফোন টেন উন্মোচন করেছে প্রতিষ্ঠানটি। টেন নামকরণ করা হলেও রোমান রীতিতে X অক্ষর ব্যবহার করে নামকরণ করা হয়েছে। এই ব্যবস্থায় ব্যবহারকারী তার আইফোন X এর দিকে তাকালেই তার চেহারা শনাক্ত করে ডিভাইসটি আনলকড হয়ে যায়। কিন্তু এই ফেইস আইডি দেখাতে গিয়েই উন্মোচন মঞ্চেই দেখা যায় বিভ্রাট, পরে দেওয়া হয় এর ব্যাখ্যাও। বছরজুড়ে জমজ চেহারা শনাক্তকরণ, মানুষের মতো চেহারার মুখোশ শনাক্তকরণের মতো নানা বিষয় নিয়ে ফেইস আইডি ছিল আলোচনায়।

নিনটেনডো সুইচ

চলতি বছর মার্চের শুরুতে সুইচ কনসোলটি উন্মোচনের পর থেকেই বিক্রির রেকর্ড গড়ে জাপানিজ গেইমিং প্রতিষ্ঠান নিনটেনডো। এর সঙ্গে ‘লিজেন্ড অফ জেলডা: ব্রিড অফ দ্য ওয়াইল্ড’ গেইমটি কনসোলটির জনপ্রিয়তা আরও বাড়িয়ে দিয়েছে। বাজারে আসার এক মাসেরও কম সময়ে গেইমটির ২৮ লাখ কপি বিক্রি করে প্রতিষ্ঠানটি।২০১২ সালে বাজারে আসে নিনটেনডোর ‘উয়ি ইউ’ কনসোল। এ পর্যন্ত এই কনসোলটির এক কোটি ৩০ লাখ বিক্রি করেছে প্রতিষ্ঠানটি। যেখানে এর আগের গেইমিং কনসোল ‘উয়ি’ এ যাবত বিক্রি হয়েছে ১০ কোটি ১০ লাখ। ২০০৬ সালে প্রথমবারের মতো বাজারে আসে ডিভাইসটি।

৪. স্যামসাং গ্যালাক্সি এস৮
চলতি বছর মার্চে এই স্মার্টফোন উন্মোচন করে দক্ষিণ কোরীয় ইলেকট্রনিক জায়ান্ট স্যামসাং। নোট ৭ স্মার্টফোন নিয়ে স্যামসাংয়ের দুর্দশার কথা নিশ্চয়ই শুনেছেন। ব্যাটারিতে আগুন ধরে যাওয়ার ঘটনায় ফোনটি বাজার থেকে সরিয়ে নিতে হয়েছিল স্যামসাংকে। সুনাম ফেরাতে স্মার্টফোনের বাজারে শীর্ষে থাকা স্যামসাংকে তাই চমক নিয়ে হাজির হওয়ার বিকল্প ছিল না। গ্যালাক্সি এস৮ কি সেই চমক? এই স্মার্টফোনে রাখা হয়নি কোনো হোম বাটন, যোগ করা হয়েছে নতুন এক ভার্চুয়াল অ্যাসিস্ট্যান্ট।

এক্সবক্স ওয়ান
চলতি বছর জুনে এক্সবক্স ওয়ান-এর নতুন সংস্করণ উন্মোচন করে মাইক্রোসফট। নতুন কনসোলটির নাম দেওয়া হয় এক্সবক্স ওয়ান এক্স।যুক্তরাষ্ট্রের লস অ্যাঞ্জেলেস-এ অনুষ্ঠিত ই৩ গেইমিং মেলায় নতুন কনসোলটি উন্মোচন করে মার্কিন এই প্রযুক্তি জায়ান্ট। মাইক্রোসফটের দাবী ৪কে আল্ট্রা এচডি রেজুলিউশানে গেইম খেলা যাবে এই কনসোলটিতে।

নকিয়া ৩৩১০
২০০০ সাল থেকে ২০০৫ সাল পর্যন্ত অ্যানালগ মোবাইল হ্যান্ডসেটের জগৎ মাতিয়ে রেখেছিল ‘নোকিয়া ৩৩১০’। ফেব্রুয়ারিতে নতুন রূপে উন্মোচিত হয় নোকিয়া ৩৩১০। নকিয়া’র সঙ্গে চুক্তিতে এই ব্র্যান্ডনাম ব্যবহার করে ফোনটি তৈরি করেছে ফিনিশ প্রতিষ্ঠান এইচএমডি গ্লোবাল। নতুন সংস্করণের এই নোকিয়া ৩৩১০ ফোনটি একটি ফিচার ফোন, যার প্রধান বৈশিষ্ট্য হচ্ছে কথা বলা ও বার্তা আদান প্রদান। ৩৩১০ ফোনটিতে ২.৫জি সংযোগ ব্যবহার করা যায়। ফোনটিতে ব্যবহার করা হয়েছে এস৩০+ অপারেটিং সিস্টেম।নতুন ‘৩৩১০’-তে ব্যাটারি ব্যাকআপ এতটাই শক্তিশালী যে টানা ২২ ঘণ্টা কথা বলা যাবে। এছাড়াও, রাখা হয়েছে ‘নকিয়া ৩৩১০’-র বিখ্যাত স্নেক গেমও কিছুটা নতুন রূপে।

রেজর ফোন
গেইমিং প্রতিষ্ঠান রেজর নভেম্বরেই এই অ্যান্ড্রয়েডচালিত স্মার্টফোন বাজারে আনে। ফোনটি বিশেষভাবে গেমারদের জন্য তৈরি করা হয়েছে। ফোনটিতে আছে অনবোর্ড স্পিকার। এতে ১২০ গিগাহার্জের ডিসপ্লে সংযোজন করা হয়েছে।ই গেমারদের কথা মাথায় রেখে বাজারে এলো নতুন গেমিং স্মার্টফোন। অ্যানড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম চালিত এই ফোনটিতে ৫.৭ ইঞ্চির শার্প আইজিজেডও ডিসপ্লে রয়েছে। ডিসপ্লের রেজুলেশন ২৫৬০x১৪৪০ পিক্সেল। রেজরের এই ফ্লাগশিপ ডিভাইসটিতে ৮ জিবি র‌্যাম এবং ৬৪ জিবি রম ব্যবহার করা হয়েছে।

অপো এফ৫
ফুল এইচডি ও ফুল স্ক্রিন ডিসপ্লে সহ যুগান্তকারী আর্টিফিসিয়াল ইন্টেলিজেন্স বিউটি টেকনোলজি নিয়ে ২০১০৭ সালে হাজির হয়েছে অপো এফ৫। কৃত্রিম বুদ্ধিমত্তাসম্পন্ন এই সৌন্দর্য প্রযুক্তি এমন এক প্রযুক্তি, যা সেলফি সৌন্দর্যে যোগ করবে নতুন মাত্রা। অ্যান্ড্রয়েড ৭.১ চালিত এই স্মার্টফোনে রয়েছে ছয় ইঞ্চির ১০৮০-বাই-২১৬০ পিক্সেলের ডিসপ্লে।

ওয়ানপ্লাস ৫
চলতি বছর জুনে ওয়ানপ্লাস ৫ স্মার্টফোনটি উন্মোচন করা হয়। এ বছরেই নভেম্বরে এই স্মার্টফোনের নতুন সংস্করণ ৫টি আনা হয়। স্মার্টফোনটির ডিজাইন, গতি, স্টোরেজ ও ক্যামেরার পারফমেন্স ইতোমধ্যে বাজারে থাকা অন্য স্মার্টফোনগুলোর সঙ্গে প্রতিযোগিতা করছে। ওয়ানপ্লাস ৫ স্মার্টফোনে আছে স্ন্যাপড্রাগন ৮৩৫ প্রসেসর।অ্যান্ড্রয়েড ৭.১.১ ন্যুগাট-ভিত্তিক অক্সিজেন অপারেটিং সিস্টেম ওয়ানপ্লাস ৫ স্মার্টফোন অক্সিজেন ওএস ভিত্তিক অ্যান্ড্রয়েড ৭.১.১ ন্যুগাট অপারেটিং সিস্টেমে চলে।

নকিয়া ৬
২০১৪-র পর এই প্রথম নকিয়া তাদের ব্র্যান্ড নেম ও লোগোসহ কোনো স্মার্টফোন বাজারে আনল। মোবাইল ফোনে ‘নকিয়া’ ব্র্যান্ডনাম ব্যবহারের স্বত্তাধিকার পাওয়ার পর বছরের শুরুতে নিজেদের প্রথম স্মার্টফোন নকিয়া ৬ উন্মোচন করে এইচএমডি। নতুন এই স্মার্টফোনে ব্যবহার করা হয়েছে ওয়েব জায়ান্ট গুগলের অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম আর এর উৎপাদনকারী হচ্ছে তাইওয়ানভিত্তিক ইলেকট্রনিক পণ্য নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ফক্সকন। শুরুতে শুধু চীনের বাজার লক্ষ্য করে বানানো হলেও পরে তা বিশ্ববাজারে ছাড়া হয়।

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন