সফল প্রতিষ্ঠান প্রধানরা আজীবন নেতৃত্ব দখল করে রাখেন না : সবুর খান

0

ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে আজ বিশ্ববিদ্যালয়ের ৭১ মিলনায়তনে আন্তর্জাতিক ‘১৯তম আইএজিবিটি-কেআইআরটিআই দ্বিবার্ষিক গবেষণা সম্মেলন’ অনুষ্ঠিত হয়।

সম্মেলনে যুক্তরাষ্ট্র, চীন, কোরিয়া, ফিলিপাইন ও বাংলাদেশের ৫১জন শিক্ষাবিদ ও গবেষক ২৭টি বৈজ্ঞানিক গবেষণা প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ট্রাস্টি বোর্ডের চেয়ারম্যান ড. মো. সবুর খান প্রধান আলোচক হিসেবে ‘ব্যবস্থাপনা পরিবর্তনের মাধ্যমে প্রতিষ্ঠানের গতিশীলতা’ শীর্ষক প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন।

এছাড়া ‘২০২৫ সালের মধ্যে এলডিসি অর্জনে বাংলাদেশী গ্রাজুয়েটদের জন্য কর্মপরিকল্পনা’ শীর্ষক একটি প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির চেয়ার প্রফেসর কি-কুয়ান উন।

বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. ইউসুফ মাহবুবুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আরও বক্তব্য দেন আইএজিবিটির চেয়ারম্যান ও কেআইআরটিআই এর প্রেসিডেন্ট প্রফেসর সুন-হুয়ান জিওন, কোরিয়ার চাং অং ইউনিভার্সিটির অধ্যাপক চ্যাং বাম চোই, এপেক স্টাডিস অ্যাসোসিয়েশন অব কোরিয়ার প্রেসিডেন্ট প্রফেসর গাইয়ং-গাইয়ু চোই, ইউনিভার্সিটি অব ফিলিপাইনের সহকারি উপাচার্য প্রফেসর জুলিয়েটা এ. দে লস রেয়েস, ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির ব্যবসায় প্রশাসন বিভাগের অধ্যাপক রফিকুল ইসলাম, ইন্টারন্যাশনাল অ্যাফেয়ার্সের পরিচালক প্রফেসর ড. মো. ফখরে হোসেন এবং বাণিজ্য ও অর্থনীতি অনুষদের ভারপ্রাপ্ত ডিন মোহাম্মদ মাসুম ইকবাল।

এছাড়া অন্যান্যের মধ্যে আরও উপস্থিত ছিলেন রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. প্রকৌশলী এ.কে.এম ফজলুল হক, পরিচালক (প্রশাসন) মোহাম্মদ ইমরান হোসেন, পরিচালক (গবেষণা) অধ্যাপক ড. কবিরুল ইসলাম, এইচআরডিআই এর ডিন অধ্যাপক ড. ফরিদ এ সোবহানী, ড্যাফোডিল গ্রুপের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ নুরুজ্জামান প্রমুখ।

প্রধান আলোচক হিসেবে প্রবন্ধ উপস্থাপনকালে ড. মো. সবুর খান বলেন, ‘কর্মীর দক্ষতা উন্নয়ন করতে না পারলে প্রতিষ্ঠানের উন্নয়ন সম্ভব নয়। এজন্য প্রতিষ্ঠানের উচ্চ পর্যায়ের পদে যারা দায়িত্ব পালন করেন তাদের উচিত অধীন কর্মীদের দক্ষরূপে গড়ে তোলা।’

এসময় মো. সবুর খান প্রতিষ্ঠানের ব্যবস্থাপনায় পরিবর্তন আনার ওপর গুরুত্ব আরোপ করেন। তিনি বলেন, ‘পৃথিবীতে কেউ চিরস্থায়ী নয়। সবাইকেই একদিন না একদিন চলে যেতে হবে। সুতরাং কারো অবর্তমানে প্রতিষ্ঠানের গতিশীলতা যেন বাধাগ্রস্তনা হয় সেজন্য প্রতিষ্ঠানের মধ্য থেকেই যোগ্য নেতৃত্ব গড়ে তোলা উচিত।’ সফল প্রতিষ্ঠান প্রধানরা আজীবন নেতৃত্ব দখল করে রাখেন না বলে মন্তব্য করেন মো.সবুর খান।

এসময় তিনি ড্যাফোডিল গ্রুপের উদাহরণ দিয়ে বলেন, ‘কিছুদিন আগে ড্যাফোডিল গ্রুপে সিইও এবং সিওও নিয়োগ করা হয়েছে। এভাবেই নেতৃত্ব তৈরি করতে হয়।’

মো. সুবর খান তাঁর প্রবন্ধে ব্যবস্থাপনা পরিবর্তনের প্রয়োজনীয়তা ও চ্যালেঞ্জ, ব্যবস্থাপনা বিষয়ে কটার্স মডেল ও কোয়ান্টাম মডেল, পরিবর্তন গ্রহণে কর্মীদের মানসিকতা বদলের গুরুত্ব ইত্যাদি বিষয়ের ওপর আলোচনা করেন।

আইএজিবিটি-কেআইআরটিআই গবেষণা সম্মেলন একটি বৈশ্বিক প্ল্যাটফর্ম যেখানে শিক্ষাবিদ ও গবেষকরা নিজেদের গবেষণাকর্ম, ভাবনা ও গবেষণালব্ধ জ্ঞান পরস্পরের মধ্যে বিনিময় করতে পারেন। এর মাধ্যমে ব্যবসা-বাণিজ্য খাতের গবেষণা উন্নয়ন তরান্বিত হয় বলে মনে করেন আয়োজকরা।

আয়োজকরা জানান, বাংলাদেশ একটি বৈচিত্র্যপূর্ণ সংস্কৃতির দেশ হওয়ার কারণে এবারের সম্মেলনের ভেন্যু হিসেবে বাংলাদেশকে বেছে নেওয়া হয়েছে।

‘টেকসই বিশ্ব-বাণিজ্যের গতিশীল রূপান্তর’ প্রতিপাদ্যকে নির্ভর করে অনুষ্ঠিত এইআন্তর্জাতিক সম্মেলনে সহযোগিতা করেছে ইন্টারন্যাশনাল একাডেমি অব গ্লোবালবিজনেস অ্যান্ড ট্রেড (আইএজিবিটি), দি কোরিয়া ইন্টারন্যাশনাল ট্রেড রিসার্চ ইনস্টিটিউট (কেআইআরটিআই), এশিয়ান ট্রেড অ্যাসোসিয়েশন (এটিএ), এপেক স্টাডিস অ্যাসোসিয়েশন অব কোরিয়া, বিকে চাংঅং ইউনিভার্সিটির গ্লোবাল লিডার প্রজেক্ট টিম অব নেক্সট জেনারেশন ট্রেড অ্যান্ড লজিস্টিক এবং ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি।

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন