সরকারি সেবার ৪০ শতাংশ ই-গর্ভনেসের আওতায় এসেছে: পলক

0

বাংলাদেশের মানুষের পারচেজ ক্যাপিসিটি বেড়েছে। তাই স্মার্টফোনের চাহিদাও বাড়ছে। ফোনের এই চাহিদা পূরণের জন্য প্রতিমন্ত্রী দেশীয়  প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠানগুলোকে দেশে কারখানা স্থাপনের আহ্বান জানান। সরকারি সেবার ৪০ শতাংশ এখন ই-গর্ভনেসের আওতায় এসেছে। আমরা এখন এম-গর্ভনেন্স নিয়ে কাজ করছি বলে জানিয়েছেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

পলক বলেন, আমরা হার্ডওয়্যার আমদানিকারক দেশ হতে চাই না। আমরা হার্ডওয়্যার রপ্তানিকারক দেশও হতে চাই। এজন্য সব ধরনের সহযোগিতা করবে সরকার।সারা পৃথিবীতে স্মার্টফোনের বড় ১০টি বাজারের মধ্যে বাংলাদেশ অন্যতম। এদেশে স্যামসাং, হুয়াওয়ের মত বড় প্রতিষ্ঠান ব্যবসা করছে। আমরা চাই স্যামসাং ও হুয়াওয়ের মত বিদেশি প্রতিষ্ঠানগুলো বাংলাদেশ স্মার্টফোন উৎপাদন করুক।

তথ্যপ্রযুক্তি বিভাগের তরুণ এই প্রতিমন্ত্রী বলেন, মানুষ এখন অফিসে যেতে চায় না। তারা চায় অনলাইনের মাধ্যমে সকল সেবা পেতে। এজন্য ডিজিটাল ওয়ালেট সেবা আনতে কাজ করছে সরকার। ফলে গ্যাস, বিদ্যুৎ এবং পানির বিল ঘরে বসে দেয়া যাবে।

রাজধানীর আগারগাঁওয়ের বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে স্মার্টফোন ও ট্যাব মেলার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্যে এই কথা বলেন।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি ছিলেন ডাক, টেলিযোগাযোগ এবং তথ্যপ্রযুক্তিমন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন