আইটি ও আইটিইএস সেক্টরে ৫৫ হাজার জনকে প্রশিক্ষণ

0

নিউজ ডেস্ক, টেকজুম ডটটিভি: তথ্যপ্রযুক্তির অবাধ ও ব্যাপক ব্যবহার এ প্রজন্মের তরুণ তরুণীদের জন্য সুযোগের দুয়ার খুলে দিয়েছে। এখন মেধা ও দক্ষতার সমাহারে সেই দুয়ার দিয়ে বিশ্বের প্রতিটি প্রান্তে ছড়িয়ে পড়তে হবে। দেশের জন্য আনতে হবে সুনাম আর সমৃদ্ধি। আর সমৃদ্ধির উপর ভর করে প্রজন্ম হবে অর্থনৈতিকভাবে স্বাবলম্বী।

মঙ্গলবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বিসিসি অডিটোরিয়ামে ‘মাঠ পর্যায়ে আউটসোর্সিং-এ দক্ষতা উন্নয়নে চাই আপনার মতামত’ শীর্ষক কর্মশালায় প্রধান অতিথির বক্তৃতায় এসব বলেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযু্ক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, সরকার একটি উজ্জল আলোকিত আগামী গড়ার লক্ষ্যেই ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার জন্য কাজ করছে। সকলে মিলে সরকারের এ প্রয়াস বাস্তবায়নে সহযোগিতা করতে হবে।

তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগের দায়িত্বপ্রাপ্ত সচিব শ্যামা প্রসাদ বেপারীর সভাপতিত্বে কর্মশালায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বেসিস সভাপতি শামীম আহসান ও বাককো’র সভাপতি আহমেদুল হক।

এ প্রকল্পের আওতায় আইটি ও আইটিইএস সেক্টরে ৫৫ হাজার জনকে প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। ফ্রিল্যান্সাদের আরও দক্ষ করে গড়ে তুলতে মাস্টার ট্রেইনার তৈরি করা হবে। ইতোমধ্যে পাইলট আকারে নাটোর ও গাইবান্ধায় প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে বলে জানানো হয় অনুষ্ঠানে।

উপস্থিত ছিলেন বিসিসি’র নির্বাহী পরিচালক এসএম আশরাফুল ইসলাম, বাংলাদেশ হাই-টেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম, আইসিটি অধিদপ্তরের মহাপরিচালক জসিম উদ্দিন আহমেদ প্রমুখ। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ওডেক্স ও ইল্যান্স’র কান্ট্রি ম্যানেজার সাইদুর মামুন খান।
রূপকল্প ২০২১ বাস্তবায়ন ও ডিজিটাল বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে বিশ্বব্যাপী অনলাইন আউটসোর্সিং সুযোগ সুবিধার উন্নয়ন এবং দেশব্যাপী ফ্রিল্যান্সারদের দক্ষতা ও সচেতনতা বৃদ্ধিতে ১৮০৩৯.৯৯ লাখ টাকা ব্যয়ে প্রকল্প বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন