ঈদ উপলক্ষে ওয়ালটন ও সিমফনির কয়েকটি নতুন স্মার্টফোন

0

ঈদের আগে থেকেই আলোচনায় রয়েছে ওয়ালটন ও সিম্ফনির কয়েকটি নতুন মোবাইল ফোন। আর ঈদ উপলক্ষ্যে ওয়ালটন ও সিম্ফনি দুই প্রতিষ্ঠানই তাদের নতুন মোবাইলগুলো মোবাইল বাজারে উন্মুক্ত করেন। তবে উন্মুক্ত করা এসব মোবাইলের মধ্যে স্মার্টফোনের বাজারে সবচেয়ে বেশি আলোচনায় ছিল ওয়ালটনের এক্স থ্রি ব্লেড স্মার্টফোনটি। অত্যন্ত পাতলা এই স্মার্টফোনটি মাত্র ৫.৫ মিলিমিটার পুরু।

ওয়ালটনের মোবাইল ফোন গবেষণা বিভাগের তথ্য অনুযায়ী, মেটাল ও গ্লাস দিয়ে তৈরি এ স্মার্টফোনটিতে দীর্ঘ সময় ব্যাটারি ব্যাক আপ সুবিধা রয়েছে। প্রিমো এক্স-৩ সেট সিএনসি মেশিনে প্রক্রিয়াজাত মেটাল এবং উচ্চমানের গ্লাস তৈরি। ফ্রন্ট এবং ব্যাক- দুই পাশেই ব্যবহূত হয়েছে করনিং গোরিলা গ্লাস ৩, ফলে এতে দাগ কম পড়ে। ফ্রন্ট প্যানেলে দশমিক ৫৫ মিলিমিটার এবং রিয়ার প্যানেলে দশমিক ৪ মিলিমিটার পুরু গোরিলা গ্লাস ব্যবহারের ফলে সেটটি মাত্র ১২৮ গ্রাম ওজনের। এই স্মার্টফোনটিতে রয়েছে সুপার অ্যামোলেড স্ক্রিনসহ ফুল এইচডি (হাই ডেফিনেশন) রেজুলেশনের ডিসপ্লে। ফলে সেটের কন্ট্রাস্ট রেশিও অনেক বেশি। এর আগে এ ধরনের ডিসপ্লে শুধু ওয়ালটনের এক্স ওয়ান সেটে ব্যবহূত হয়েছে। অন্যান্য মডেলের স্মার্টফোনের তুলনায় এক্স থ্রি ব্লেড চারগুণ বেশি স্বচ্ছ ও ঝকঝকে ছবি দেখাতে সক্ষম। ব্যবহারকারীরা ভিডিওতে পাবেন অনেক ভাইব্রেন্ট কালার।

এক্স-থ্রির প্রসেসিং ইউনিটে রয়েছে ১.৭ গিগাহার্টজ অক্টোকোর প্রসেসর, দুই গিগাহার্টজ র্যাম এবং জিপিইউ মালি ৪৫০ এমপি ফোর। রয়েছে সিঙ্গেল মাইক্রোসিম চেম্বার। এছাড়া উচ্চ গতির ডুয়াল ব্র্যান্ড ওয়াইফাই (২.৪ এবং ৫) গিগাহার্টজ, ওটিজি ও ব্লটুথ ব্যবহারের সুবিধাও রয়েছে। স্মার্টফোনটির পেছনে রয়েছে বিএসআই সেন্সরযুক্ত ১৩ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। এছাড়া সামনের দিকে রয়েছে ৫ মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা। স্মার্টফোনটিতে স্বল্প আলোতেও ঝকঝকে ছবি তোলা যায়। ক্যামেরার সঙ্গে ৯৫ ডিগ্রি ওয়াইড অ্যাঙ্গেল লেন্স থাকায় ফ্রন্ট ক্যামেরায় গ্রুপ ছবি (সেলফি) তোলা সহজ। সব মিলিয়ে এই সেটের পিক্সেল ডেনসিটি এবং শার্পনেস অনেক বেশি। অ্যান্ড্রয়েডের সর্বশেষ সংস্করণ কিটক্যাট ৪.৪.২ নির্ভর স্মার্টফোনটিতে দীর্ঘক্ষণ ব্যাটারি থাকে। এক্স থ্রিতে আছে ২৪৫০ মিলি অ্যাম্পিয়ার লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি। বাংলাদেশে প্রিমো এক্স-থ্রি মডেলের এই ওয়ালটন হ্যান্ডসেটের দাম ২৮ হাজার ৯৯০ টাকা।

অপরদিকে ঈদের আগে তিনটি নতুন স্মার্টফোন মোবাইল বাজারে আনে সিম্ফনি। এক্সপ্লোরার এইচ ১০, ডব্লিউ ১৩ ও এক্সপ্লোরার জেড ৪ নামের এই তিনটি  নতুন মডেলের অপারেটিং সিস্টেম হিসেবে অ্যান্ড্রয়েড কিটক্যাট ব্যবহূত হয়েছে।

৫ ইঞ্চি আইপিএস এইচডি ডিসপ্লের এইচ ১০ স্মার্টফোনটিতে এইচডি ভিডিও দেখা এবং গেমস খেলার ক্ষেত্রে বিশেষ সুবিধা পাওয়া যায়। ছবি এবং ভিডিও অধিক বাস্তবতাসম্পন্ন করে তুলতে এবং ক্লিয়ার ফুল অ্যাঙ্গেল ভিউ উপস্থাপন করতে এইচ ১০০ হ্যান্ডসেটটিতে ব্যবহার করা হয়েছে আইপিএস প্রযুক্তি। বড় মাপের ডিসপ্লের কারণে ইন্টারনেট, ফেসবুকসহ অন্যান্য অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহারে সুবিধাও রয়েছে। স্মার্টফোনটিতে পেছনে আট ও সামনে দুই মেগাপিক্সেলের ক্যামেরা রয়েছে। ফ্ল্যাশ লাইট, কন্টিনিউয়াস শটসহ আরও বেশ কিছু আকর্ষণীয় ফিচার রয়েছে এতে। ১.৩ গিগাহার্টজ কোয়াড কোর প্রসেসরের স্মার্টফোনটিতে দ্রুত মাল্টিটাস্কিং করা যায়। স্মার্টফোনটিতে রয়েছে এক জিবি র‍্যাম এবং ৮ জিবি রম, লাইট অ্যান্ড প্রক্সিমিটি সেন্সর, জি সেন্সর, অ্যাকসিলরোমিটার সেন্সর, থ্রিজি, ওয়াই-ফাই সুবিধা। স্মার্টফোনটির দাম ১২ হাজার ৫৯০ টাকা।

ডব্লিউ ১৩ নামে নতুন মডেলের স্মার্টফোনটিতে রয়েছে পাঁচ ইঞ্চি মাপের আইপিএস ডিসপ্লে। এর পেছনে আট ও সামনে দুই মেগাপিক্সেল ক্যামেরা রয়েছে। ক্যামেরাতে ফ্ল্যাশ লাইট, কন্টিনিউয়াস শট সহ আরও বেশ কিছু সুবিধা রয়েছে । ১.৩ গিগাহার্টজ কোয়াড কোর প্রসেসরযুক্ত স্মার্টফোনটি দ্রুত ডাটা প্রসেসর করতে পারে । এই স্মার্টফোনটির দাম ১২ হাজার ৯৯০ টাকা।

এক্সপ্লোরার জেড ৪ নামের নতুন এই স্মার্টফোনটিতে অ্যান্ড্রয়েড ৪.৪.২ কিটক্যাট সংস্করণ ব্যবহূত হয়েছে। আকর্ষণীয় নকশার এই প্রিমিয়াম স্মার্টফোনটি যথেষ্ট হালকা-পাতলা। এটি মাত্র ৭.২৫ মিলিমিটার পুরুত্বের। হ্যান্ডসেটটিতে ৫.৫ ইঞ্চি আইপিএস ফুল এইচডি ডিসপ্লে রয়েছে। ফুল এইচডি ডিসপ্লে সুবিধা থাকার কারণে ব্যবহারকারীরা হাই রেজুলেশনের ভিডিও এবং গেমস খেলতে পারেন। ঝকঝকে ছবি এবং অসাধারণ গেমিং অভিজ্ঞতা পেতে এ হ্যান্ডসেটটিতে ব্যবহার করা হয়েছে মালি ৪৫০ জিপিইউ।

স্মার্টফোনটিকে শক্তিশালী এবং সহজ মাল্টি-টাস্কিং সুবিধাসম্পন্ন করার জন্য রয়েছে ১.৭ গিগাহার্টজের অক্টাকোর প্রসেসর। স্মার্টফোনটির পেছনে ১৩ মেগাপিক্সেল ও সামনে ৫ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা রয়েছে। শক্তিশালী ২৮০০ এমএএইচ লিথিয়াম আয়ন ব্যাটারি এ হ্যান্ডসেটটিকে দীর্ঘক্ষণ কার্যক্ষম রাখতে সহায়তা করবে। দুই জিবি র‍্যাম এবং ১৬ জিবি রম, লাইট অ্যান্ড প্রক্সিমিটি সেন্সর,  জি সেন্সর, ম্যাগনেটিক সেন্সরসহ আরও বেশ কিছু সেন্সর রয়েছে এতে। এছাড়াও থ্রিজি, ওয়াই-ফাই, ওয়্যারলেস ডিসপ্লের মতো আকর্ষণীয় ফিচার রয়েছে। স্মার্টফোনটি ডুয়াল মাইক্রোসিম সমর্থন করে। নতুন স্মার্টফোনটি ২২ হাজার ৯৯০ টাকায় বিক্রি করছে সিম্ফনি।

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন