সেলফ থেকে সেলফি

0

‘সেলফি’। উঠতি বয়সীদের কাছে বেশি জনপ্রিয় হলেও ভাইরাসের মতো ছড়িয়ে পড়ছে সর্বস্তরে। সেলফিতে মুগ্ধ বারাক ওবামা, নরেন্দ্র মোদি, ভ্যাটিকানের পোপসহ মহাকাশের নভোচারীরাও! এই ঈদের আনন্দকে আরো একটু বাড়াতে পারে বন্ধুবান্ধব নিয়ে তোলা একটি সেলফি। শুরুর কথা, তোলার কৌশল আর উপযুক্ত স্মার্টফোনের খোঁজখবর নিয়ে এই আয়োজন-

প্রথম সেলফি
১৮৩৯ সাল। স্মার্টফোন তো দূরে থাক, ফোনই আসেনি। তবে ক্যামেরা এসেছে কয়েক দিন হলো। ফটোগ্রাফির অগ্রদূত মার্কিন বিজ্ঞানী রবার্ট কর্নেলিয়াসের মাথায় প্রথম বুদ্ধি আসে, নিজের একটা ছবি তুললে কেমন হয়? বাক্সের ভেতর নেগেটিভ রেখে তাতে লেন্স জুড়ে একটা কিছু দাঁড় করালেন। কোনোমতে সামনে দাঁড়িয়ে নিজের চেহারা থেকে পর্যাপ্ত আলো ঢুকতে দিলেন ক্যামেরার ছিদ্রে। পরে ডেভেলপ করতেই ফুটে উঠল নিজের অবয়ব। ওটা শুধু প্রথম সেলফিই নয়, ওই ছবিটা একই সঙ্গে প্রথম কোনো মানুষের আলোকচিত্রও বটে!

প্রথম টিন এজারের সেলফি

রবার্টের মতো একজন বুড়ো লোক নিজের ছবি নিজে তুললে সেটাকে ‘সেলফি’ বলতে হবে- এমন তো কথা নেই। সেলফি শব্দটা যে টিন এজারদের দখলে! তবে ইদানীং নয়, আজ থেকে এক শ বছর আগে প্রথম কোনো টিন এজার তার সেলফি তোলে! আর সে ছিল রাশিয়ার গ্র্যান্ড ডাচেস অ্যানাসতেশিয়া নিকোলায়েভনা। ১৩ বছরের ওই বালিকা আয়নার সামনে দাঁড়িয়ে ক্যামেরায় নিজেকে ফ্রেমবন্দি করেছিল ১৯১৪ সালে। উদ্দেশ্য ছিল ‘শেয়ার’ করা। মানে বন্ধুকে পাঠানো। ছবির পেছনে অ্যানাসতেশিয়া লিখে দিয়েছিল, ‘আয়নার দিকে তাকিয়ে ছবিটা আমি নিজেই তুলেছি। কাজটা খুব কঠিন ছিল, কারণ হাত আমার কাঁপছিল।’

সেরা সেলফি তোলার ৭ কৌশল

১. সেলফি তোলার সময় আলোর বিষয়ে সচেতন থাকতে হবে। কারণ সেলফির গুণগত মান ঠিক রাখতে আলোর ঔজ্জ্বল্য বিবেচ্য বিষয়। বেশি আলো হলে সেলফি নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

২. ক্যামেরা একটু পাশ করে নিয়ে ছবি তুলতে হবে, যাতে বিপরীতে কিছু ছায়া পড়ে। এতে আপনার মুখ স্পষ্ট বোঝা যাবে।

৩. আলোকে সরাসরি পেছনে রেখে সামনে থেকে ছবি তোলা যেতে পারে। তবে ক্যামেরা ও আলোর উৎসের মাঝখানে মুখ রাখতে হবে।

৪. সেলফি সম্পাদনা করার জন্য অনেক অ্যাপ রয়েছে। এসব অ্যাপ ব্যবহার করে একটি খারাপ মানের ছবিকে ভালো মান দেওয়া যায়। সম্পাদনায় দক্ষ হলে তো কথাই নেই।

৫. স্মার্টফোনের পেছনের ক্যামেরাটিই বেশি ব্যবহার করুন। কারণ পেছনের ক্যামেরাটিই মূল ক্যামেরা এবং এতে ছবি অনেক ভালো আসে।

৬. সেলফি নিতে ব্যাকগ্রাউন্ডের কথা ভুলে যাবেন না। মনে রাখবেন, সেলফি কেমন হবে তা নির্ভর করে এটির ব্যাকগ্রাউন্ড কত ভালো তার ওপর। ব্যাকগ্রাউন্ড কোনো দর্শনীয় স্থান হলে নিজেকে ব্যাকগ্রাউন্ডের সঙ্গে সেট করে নিন। এতে ব্যাকগ্রাউন্ড স্পষ্ট হয়ে উঠবে এবং ছবিটির আবেদনও ফুটে উঠবে।

৭. বন্ধুদের নিয়ে একসঙ্গে সেলফি করলে সেটা সবচেয়ে ভালো হয়। জর্জিয়ার ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি এক গবেষণায় বলেছে, বন্ধুদের সঙ্গে ছবি তুললে নিজের ভাবমূর্তি ৩৮ শতাংশ বেশি ফুটে ওঠে। সূত্র : বিজনেস ইনসাইডার

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন