ডটবাংলা ডোমেইন হারায়নি বাংলাদেশ

0

হিটলার এ. হালিম// ডটবাংলা ডোমেইন হারায়নি বাংলাদেশ। এমনকি এর বরাদ্দও বাতিল হয়নি। বিষয়টি এখনও ‘অপেক্ষমান’ (পেন্ডিং ডেলিগেশন) অবস্থায় রয়েছে। ডটবাংলা (.বাংলা) বাংলাদেশের দ্বিতীয় কান্ট্রি কোড টপ-লেভেল ডোমেইন (সিসি-টিএলডি)। প্রথমটি হলো ডটবিডি (.বিডি)। এটি চালু রয়েছে। এই ডোমেইন দু’টি দিয়ে বাংলা ভাষায় ওয়েব ঠিকানা বোঝানো হয়।

গত দুদিনে দেশের বিভিন্ন গণমাধ্যমে প্রচার হয়েছে,বাংলাদেশ ডটবাংলা ডোমেইন হারিয়েছে। খবরটি প্রচারের পর সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ঝড় ওঠে। বিতর্ক, সমালোচনায় সরব হয়ে ওঠেন তথ্যপ্রযুক্তিপ্রেমীরা। অবশেষে জানা গেল,বাংলাদেশের হাতছাড়া হয়নি ডটবাংলা।

ইন্টারনেটে ডোমেইন নাম, ঠিকানা বরাদ্দকারী সংস্থা হলো ইন্টারনেট করপোরেশন ফর অ্যাসাইনড নেমস অ্যান্ড নাম্বারস বা আইসিএএনএন। আইসিএএনএন আন্তর্জাতিকভাবে ডোমেইন নেম (আইডিএন) হিসেবে ডটবাংলার প্রথম পর্যায়ের অনুমোদন দেয়। বৃহস্পতি ও শুক্রবার আইসিএএনএন’র ওয়েবসাইটে গিয়ে দেখা যায়, সেখানে ডটবাংলা ডোমেইনের ‘অপারেশনাল মেট্রিকস’অংশে স্ট্যাটাসের ঘরে লেখা রয়েছে ‘পেন্ডিং ডেলিগেশন’।

বাংলা ভাষায় ইন্টারনেটে ডোমেইন (বাংলায় ওয়েব ঠিকানা লিখতে) ডটবাংলা বরাদ্দ পেলেও তত্ত্বাবধায়ক ঠিক না হওয়ায় চূড়ান্তভাবে এখনও এটি পায়নি বাংলাদেশ। ডাক ও টেলিযোগাযোগ বিভাগ, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন (বিটিআরসি)না বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ কোম্পানি লিমিটেড (বিটিসিএল) কে এর তত্ত্বাবধান করবে, সে বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারছে না সরকার।

প্রসঙ্গত, ২০১১ সালের ২১ ফেব্রুয়ারি এটি পেতে আবেদন করা হয়। ২০১২ সালে তা (.বাংলা) ব্যবহারের অনুমতি পেলেও বাংলা পদ্ধতিগত এবং কার্যকর উদ্যোগ গ্রহণ করতে না পারায় এখনও তা বাংলাদেশের হয়নি।

এ বিষয়ে তথ্যপ্রযুক্তি বিশেষজ্ঞ মোস্তাফা জব্বার তার ফেসবুক ওয়ালে লিখেছেন, অস্ট্রেলিয়া থেকে রোমান ফোন করেছিল। সুখবরটা তারই দেওয়া। ডটবাংলা ডোমেইন এখনও হারায়নি। বাতিলও হয়নি। তবে কাজ বাকি আছে। স্থগিত আছে কয়েক বছর যাবত। কাজটি হচ্ছে না। সেটি করতে হবে। এখনই সময়।

এদিকে আরেক প্রযুক্তি বিশ্লেষক সুমন আহমেদ সাবির বলেন,আইসিএএনএন বলছে,ডটবাংলা বিষয়ে তাদের সিদ্ধান্ত অপেক্ষমান হিসেবে রয়েছে। তারা বাংলাদেশের অধিকার প্রত্যাহার করেনি। তিনি আরও বলেন, আমরা আসলে এটি চালুর বিষয়ে অনেক সময় নিয়েছি। আমি খোঁজ নিয়ে দেখেছি এ ধরনের কোনও ঘটনা ঘটেনি। আর আইসিএএনএন এ ধরনের কাজ করতে পারে না। এটা তাদের নিয়মে নেই। তবে আমি ভয় দেখানোর জন্য বলি,আমরা যদি না নিই তাহলে অন্য কেউ এটা নিয়ে নেবে।

বিস্তারিত জানতে লিংকে ক্লিক করুন

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন