বিশ্বের ৯০ শতাংশের বেশি কম্পিউটার উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমে চলছে। গত মাস পর্যন্ত হিসাব করে এ তথ্য জানায় নেটমার্কেটশেয়ার। চলতি মাসের শেষ দিকে উইন্ডোজ ১০ বাজারে এলে এ দখল আরো বাড়বে বলে মনে করছেন বিশ্লেষকরা। খবর টেকটু।

দীর্ঘ সময় ধরে পার্সোনাল কম্পিউটারের জন্য গ্রাহকদের পছন্দের শীর্ষে রয়েছে মাইক্রোসফটের উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম। মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি নিয়মিতই তাদের এ অপারেটিং সিস্টেমের নতুন নতুন সংস্করণ বাজারে আনছিল। তবে এর মধ্যে সবগুলো গ্রাহক সানন্দে গ্রহণ না করলেও এমন কিছু সংস্করণ ছিল, যা বিশ্বের অধিকাংশ কম্পিউটারে চলেছে। এমনকি এখনো চলছে। এর মধ্যে অন্যতম উইন্ডোজ এক্সপি ও উইন্ডোজ ৭। সম্প্রতি প্রতিষ্ঠানটি তাদের অপারেটিং সিস্টেমের নতুন সংস্করণ আনা বন্ধ করবে বলে ঘোষণা দেয়। এর আগে উইন্ডোজ এক্সপি বন্ধসহ উইন্ডোজ ৭ বন্ধ প্রক্রিয়া শুরুরও ঘোষণা দেয় সফটওয়্যার নির্মাতা মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি। এরই প্রেক্ষাপটে উইন্ডোজ নিয়ে বিশ্বব্যাপী আবারো আলোচনা শুরু হয়েছে।

অপারেটিং সিস্টেমটি তাদের আগের ধারা ধরে রাখতে পারবে কিনা, তাই নিয়ে ভাবছেন বাজার বিশ্লেষকরা। কারণ নতুন কিছু সবসময়ই বিস্ময়ের জন্ম দেয়। আর উইন্ডোজ এক্সপি বন্ধ করে দেয়ার ফলে উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম গ্রাহকরা নতুন উইন্ডোজ ১০-এর দিকেই ঝুঁকবে বলে আশাবাদী মাইক্রোসফট। এদিকে উইন্ডোজ সেভেনও বন্ধ করে দেয়ার প্রক্রিয়া শুরু করেছে প্রতিষ্ঠানটি। এ পরিস্থিতিতে উইন্ডোজ ১০-ই হবে উইন্ডোজ গ্রাহকদের আশার আলো।

নেটমার্কেটশেয়ারের প্রতিবেদন অনুযায়ী, বিশ্বের ৯০ দশমিক ৮৫ শতাংশ কম্পিউটার উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেমে চলছে। এর বাইরে ম্যাক অপারেটিং সিস্টেমে চলছে ৭ দশমিক ৮৫ শতাংশ আর লিনাক্সে ১ দশমিক ৬১ শতাংশ কম্পিউটার। উইন্ডোজ ৭ এখনো জনপ্রিয়তার শীর্ষে রয়েছে। বিশ্বব্যাপী ৬০ দশমিক ৯৮ শতাংশ কম্পিউটার চলছে এ সফটওয়্যারে। উইন্ডোজ ৮.১ চলছে ১৩ দশমিক ২ শতাংশ কম্পিউটারে। উইন্ডোজ এক্সপিতে চলছে ১১ দশমিক ৯৮ শতাংশ কম্পিউটার।

উল্লেখ্য, বেশ আগেই উইন্ডোজ এক্সপির সব ধরনের নিরাপত্তা আপডেট সরবরাহ বন্ধের ঘোষণা দিয়েছে মাইক্রোসফট। এ কারণে এক্সপির ব্যবহার উল্লেখযোগ্য হারে কমে এসেছে। অপারেটিং সিস্টেমের নতুন সংস্করণ যেমন: ম্যাক ওএস এক্স, ইয়োসেমিতে চলছে ৪ দশমিক ৫৪ শতাংশ কম্পিউটার।

চলতি মাসের ২৯ তারিখ বিশ্বের ১৯০টি দেশের বাজারে আসছে উইন্ডোজ ১০। আর এ অপারেটিং সিস্টেমকে ঘিরে মাইক্রোসফটের প্রত্যাশা কম নয়। তারা আগেই জানিয়েছে উইন্ডোজের যত আপডেট হবে, তা এ সংস্করণকে ঘিরেই। অর্থাত্ নতুন আর কোনো উইন্ডোজ সংস্করণ পাচ্ছেন না গ্রাহক।
পার্সোনাল কম্পিউটারের বাজারে আধিপত্য ধরে রাখলেও মোবাইল অপারেটিং সিস্টেমের বাজারে খুব একটা সুবিধা করতে পারছে না মার্কিন প্রতিষ্ঠানটি। কিন্তু উইন্ডোজ ১০ অপারেটিং সিস্টেমটি সব ধরনের প্লাটফর্মের জন্য উন্মুক্ত করার সিদ্ধান্ত মোবাইল অপারেটিং বাজারে মাইক্রোসফটকে আরো এগিয়ে নেবে বলে মনে করছেন বাজার বিশ্লেষকরা।

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন