নিউজ ডেস্ক, টেকজুম ডটটিভি// যারা স্মার্টফোন ব্যবহার করেন তাদের বেশিরভাগই ব্যাটারি চার্জ দ্রুত শেষ হওয়ার সমস্যায় ভুক্তভোগী। কেননা স্মার্টফোন শুধুমাত্র কথা বলার যন্ত্র নয়। বরঞ্চ ইন্টারনেট ব্যবহার করার জন্য জনপ্রিয় ডিভাইসও। সঙ্গে যদি গেমস খেলার নেশা থাকে তা হলে তো কথাই নেই। কখন যে চুপিসারে আপনার ফোনের চার্জ শেষ হয়ে যাবে, আপনি নিজেও জানবেন না। তার ওপর এখন চলছে ঈদের মৌসুম।

ঈদ উপলক্ষে অনেককেই তাই দীর্ঘ যাত্রা পথে স্মার্টফোনের চার্জ নিয়ে দুশ্চিন্তায় পড়তে হবে।

চলতি পথে সেই বিপদজনক পরিস্থিতির মোকাবেলায় সিলভা টেকনোলজিস বাংলাদেশের বাজারে নিয়ে এসেছে রোমোস ব্র্যান্ডের সোলো সিরিজের ৩টি মডেলের পাওয়ার ব্যাংক। এর মধ্যে সোলো টু মডেলের পাওয়ার ব্যাংকটি ৪০০০এমএইচ, সোলো ফাইভ মডেলটি ১০,০০০এমএএইচ এবং সোলো নাইন মডেলটি ২০,০০০এমএএইচ ধারণক্ষমতা সম্পন্ন।

সহজে বহনযোগ্য এই পাওয়ার ব্যাংকগুলোর ব্যবহারকারী চলার পথে, ভ্রমনে বা প্রয়োজনীয় মুহূর্তে তাদের স্মার্টফোনের পাশাপাশি অন্যান্য মাইক্রো ইউএসবি চালিত ডিভাইস সমূহের ব্যাটারির পাওয়ার রিচার্জ করতে পারবেন। চার্জের অবস্থা দেখার জন্য রয়েছে রোমোস পাওয়ার ব্যাংকে রয়েছে এলইডি ইন্ডিকেটর।

রোমোস ব্র্যান্ডের সোলো টু মডেলের ৪০০০এমএএইচ পাওয়ার ব্যাংকটির মাধ্যমে মোবাইলফোন, স্মার্টফোন, এমপিথ্রি, এমপিফোর প্লেয়ার চার্জ করা যাবে। মূল্য ১ হাজার ১৫০ টাকা।

সোলো ফাইভ মডেলের ১০,০০০এমএএইচ পাওয়ার ব্যাংকটিতে রয়েছে ২টি ইউএসবি পোর্ট, যা একই সঙ্গে দুইটি ডিভাইসে পাওয়ার রিচার্জ করতে পারে। যেমন এই পাওয়ার ব্যাংকটির মাধ্যমে একইসঙ্গে স্মার্টফোন এবং ট্যাবলেটে দ্রুততার সঙ্গে চার্জ করা যাবে। একবার ফুল চার্জ দিলে চলতি পথে অন্তত পাঁচবার স্মার্টফোনের ব্যাটারি চার্জ করা যায়। এই পাওয়ার ব্যাংকটির পাওয়ার কনজামশন রেট ৮৫ শতাংশ পর্যন্ত। দাম ১ হাজার ৮০০ টাকা।

সোলো নাইন মডেলের ২০,০০০এমএএইচ পাওয়ার ব্যাংকটিতে রয়েছে ৩টি ইউএসবি পোর্ট, যা একই সঙ্গে তিনটি ডিভাইসে পাওয়ার রিচার্জ করতে পারে। একবার ফুল চার্জ দিলে চলতি পথে অন্তত দশবার স্মার্টফোনের ব্যাটারি চার্জ করা যাবে। এই পাওয়ার ব্যাংকটির পাওয়ার কনজামশন রেট ৮৫ শতাংশ পর্যন্ত। দাম ২ হাজার ৮০০ টাকা।

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন