নিউজ ডেস্ক, টেকজুম ডটটিভি// ছোট হতে হতে কম্পিউটার এ বার আপনার পকেটেই বন্দি হয়ে যাবে। ভাবছেন, ট্যাব বা স্মার্টফোনের কথা বলছি। একেবারেই নয়, পকেটের কোণে একটি আস্ত সেন্ট্রাল প্রসেসিং ইউনিট (সিপিইউ)-এর ঢুকে যাওয়ার কথাই বলছি। আকৃতিতে এটি আমাদের অতিপরিচিত পেনড্রাইভের মতোই। কোনও মনিটর বা টিভি (এলসিডি, এলইডি)-র এইচডিএমআই (হাই ডেফিনিশন মাল্টিমিডিয়া ইন্টারফেজ) পোর্টে গুঁজে দিলেই কেল্লাফতে। তার পরে ল্যাপটপ বা ডেস্কটপের মতো কাজ করতে থাকুন। এ ক্ষেত্রেও ব্লু-টুথ দিয়ে কি-বোর্ড আর মাউসও জুড়ে ফেলতে পারেন। আর ইউএসবি পোর্ট ব্যবহার করে জুড়তে পারেন প্রিন্টার, স্ক্যানার-এর মতো যন্ত্রও। সঙ্গে ইন্টারনেট তো আছেই।

ভাবছেন কল্পবিজ্ঞানের গল্প বলছি। না, ভারতের বাজারে এ ধরনের ‘কম্পিউটার-অন-আ-স্টিক’ নিয়ে এসেছে প্রযুক্তি সংস্থা ইন্টেল। তবে ইন্টেল একা নয়, ‘কম্পিউটার-অন-আ-স্টিক’ নিয়ে এসেছে প্রযুক্তি সংস্থা আই-বল। আছে গুগ্‌ল-এর ‘ক্রোমবাইট’-ও।

২০১৫-র ‘সিইএস’ প্রযুক্তি প্রদর্শনীতে প্রথম ‘কম্পিউটার-অন-আ-স্টিক’-এর কথা বলে ইন্টেল। এই যন্ত্রে দুই জিবি (ডিডিআর-৩) র‌্যাম আর ইন্টেল-এর কোয়াডকোর অ্যাটম প্রসেসর থাকছে। এর মধ্যেই পাবেন প্রায় ৩২ জিবি মেমোরি। মেমোরি আরও বাড়ানোর জন্য মাইক্রো এসডি কার্ড ব্যবহারের ব্যবস্থাও রয়েছে এখানে। রয়েছে ইন্টেলের নিজস্ব ইন্টিগ্রেটেড হাইপার ডেফিনিশন গ্রাফিক্স। এর সঙ্গে উইন্ডোজের ৮.১ ভার্সনও দিচ্ছে ইন্টেল।
ইন্টেলের এই ‘কম্পিউটার-অন-আ-স্টিক’-এ পাচ্ছে ইউএসবি ২.০ পোর্ট, ওয়াইফাই (৮০২.১১ বি/জি/এন), ব্লু-টুথ (৪.০) এবং টিভি বা মনিটরের সঙ্গে জোড়ার জন্য এইচডিএমআই পোর্ট (১.৪)। একই সঙ্গে লিনাক্স অপারেটিং সিস্টেমেরও ‘কম্পিউটার-অন-আ-স্টিক’ নিয়ে এসেছে ইন্টেল। তাতে অবশ্য র‌্যাম থাকছে এক জিবি (ডিডিআর-৩)। মেমোরি থাকছে ৮ জিবি। উবন্তু শ্রেণির লিনাক্সের ব্যবহার করা হবে বলে ইন্টেল জানিয়েছে। এর দাম পড়ছে মোটামুটি ভাবে ১০ হাজারের মধ্যে।

মাইক্রোসফ্‌টের সঙ্গে যৌথ ভাবে ‘কম্পিউটার-অন-আ-স্টিক’ নিয়ে এসেছে আই-বল সংস্থাও। নাম দিয়েছে ‘স্‌প্লিন্ডো’। প্রধানত এইচডিএমআই পোর্টযুক্ত টিভিতে কম্পিউটারের স্বাদ দিতে এই উদ্যোগ। এতে রয়েছে দুই জিবি (ডিডিআর-৩) র‌্যাম আর ইন্টেল-এর কোয়াডকোর অ্যাটম প্রসেসর। মেমোরি ৩২ জিবি। এটিও উইন্ডোজের ৮.১ ভার্সনে চলবে। থাকছে ইউএসবি পোর্ট, ওয়াইফাই, ব্লু-টুথ এবং টিভি বা মনিটরের সঙ্গে জোড়ার জন্য এইচডিএমআই পোর্ট। এর দাম পড়বে ৯ হাজারের মধ্যে।

কম্পিউটারকে পকেটবন্দি করার এই প্রয়াসে পিছিয়ে নেই গুগ্‌লও। চলিতে বছরের এপ্রিলে আসুস-এর সঙ্গে যৌথ ভাবে তারা বাজারে এনেছে ‘ক্রোম বাইট’। এতেও কোয়াড-কোর প্রসেসর থাকছে। তবে তা এআরএম সংস্থার তৈরি। র‌্যাম থাকছে দুই জিবি। মেমোরি ১৬ জিবি। এ ছাড়া ওয়াইফাই (৮০২.১১ বি/জি/এন), ব্লু-টুথ (৪.০)। এই ‘কম্পিউটার-অন-আ-স্টিক’ চলবে ক্রোম-এ। তবে এখানে মাইক্রসো এসডি কার্ড লাগানোর ব্যবস্থা নেই।
সংযুক্তিকরণের সময়ে ‘কম্পিউটার-অন-আ-স্টিক’ ভারতের বাজারে জনপ্রিয় হয়ে উঠবে বলে আশা সংস্থাগুলির। তাই অনলাইন শপিং সাইটগুলির পাশাপাশি টিভি নির্মাতাদের সঙ্গেও কথা চালাচ্ছে তারা। যাতে টিভির পাশাপাশি ক্রেতার কাছে কম্পিউটারের সুবিধাও সহজেই পৌঁছে দেওয়া যায়।

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন