নিজস্ব প্রতিবেদক, টেকজুম ডটটিভি// টেলিকম ও ইন্টারনেট সেবা প্রদানকারী লাইসেন্সহীন প্রতিষ্ঠানগুলো বিরুদ্ধে শিগগিরই আইনগত ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে নিয়ন্ত্রক সংস্থা বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ কমিশন-বিটিআরসি।এতে ব্যক্তি/প্রতিষ্ঠানের অনধিক ১০ বছর জেল অথবা অনধিক ৩শ কোটি টাকা জরিমানা হতে পারে।

বিটিআরসি থেকে লাইসেন্স ছাড়া কোনো কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠান ইন্টারনেটসহ বিভিন্ন টেলিকম সেবা প্রদান এবং এ লক্ষ্যে স্থাপনা নির্মাণ ও পরিচালনার পরিপ্রেক্ষিতে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানিয়েছে কমিশন।

সোমবার (২৪ আগস্ট) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে বিটিআরসি জানায়, বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইন, ২০০১ এর বিধান অনুযায়ী টেলিযোগাযোগ, ইন্টারনেট প্রভৃতির জন্য লাইসেন্স বাধ্যতামূলক। ওই আইনের ৩৫ ধারায় বলা হয়, কোনো ব্যক্তি লাইসেন্স ব্যতীত বাংলাদেশে টেলিযোগাযোগ ব্যবস্থা স্থাপন, পরিচালনা বা উক্ত ব্যবস্থার কোনো স্থাপনা নির্মাণ করবে না; বাংলাদেশে বা বাংলাদেশ থেকে বহির্বিশ্বে টেলিযোগাযোগ সেবা দেবে না; ইন্টারনেট সেবার স্থাপনা নির্মাণ বা যন্ত্রপাতি স্থাপন বা উক্ত স্থাপনা বা যন্ত্রপাতি পরিচালনা করবে না।’

লিগ্যাল অ্যান্ড লাইসেন্সিং বিভাগের পরিচালক (লাইসেন্সিং) এম এ তালেব হোসেন স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে একই সঙ্গে কমিশন থেকে সংশ্লিষ্ট টেলিকম সেবার লাইসেন্স গ্রহণের অনুরোধ করা হয়।

‘অন্যথায় লাইসেন্সবিহীন অবস্থায় ইন্টারনেট বা অন্য কোনো টেলিকম সেবা দিলে তার বিরুদ্ধে বাংলাদেশ টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রণ আইন, ২০০১ এর বিধান অনুযায়ী ফৌজদারি ব্যবস্থাসহ অন্য আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণে কমিশন বাধ্য হবে।’

বিটিআরসি জানায়, লাইসেন্সবিহীন প্রতিষ্ঠানকে ব্যান্ডউইডথসহ সংশ্লিষ্ট সংযোগ ও ওই প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে টেলিকম/ইন্টারনেট সেবা গ্রহণ করাও আইনত দণ্ডনীয় অপরাধ।

‘উক্ত লাইসেন্সবিহীন প্রতিষ্ঠানগুলোর বিরুদ্ধে শিগগিরই কমিশন আইনগত ব্যবস্থা নিতে যাচ্ছে, কাজেই লাইসেন্স ব্যতীত টেলিকম/ইন্টারনেট সেবা প্রদানকারী কোনো ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে নো প্রকার চুক্তি, সেবা প্রদান, সেবা গ্রহণ, ব্যন্ডউডথ প্রদান ও ব্যবসায়িক টেলিকম ও ইন্টারনেট সেবা গ্রহণ বা প্রদান থেকে সংশ্লিষ্ট (বিএসসিসিএল, আইআইজি, আইটিসি, বিডব্লিএ, এনটিটিএন, আইএসপি এবং অন্যান্য) সবাইকে বিরত থাকার জন্য বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো।’

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন