নিউজ ডেস্ক, টেকজুম ডটটিভি// এবার হ্যাকিংয়ের শিকার হয়েছে মোবাইল পেমেন্ট সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান ‘লুপ পে’। স্যামসাং ডিভাইসে নতুন পেমেন্ট সার্ভিস ‘স্যামসাং পে’ অন্তর্ভূক্ত করার জন্য প্রতিষ্ঠানটি কাজ করে আসছিল।

প্রযুক্তিবিষয়ক ওয়েবসাইট সিনেট জানিয়েছে, চীন সরকারের পৃষ্ঠপোষকতায় পরিচালিত ‘কোডোসো গ্রুপ’ (সানশক নামেও পরিচিত) নামের একটি হ্যাকিং দল চলতি বছরের মার্চ মাসে লুপ পে সিস্টেমের কম্পিউটার নেটওয়ার্ক আক্রমণ করে।

চলতি বছর ২৫ কোটিরও বেশি ডলার খরচ করে যুক্তরাষ্ট্রের বার্লিংটনে অবস্থিত মোবাইল পেমেন্ট সেবাপ্রদানকারী প্রতিষ্ঠান ‘লুপ পে’-এর মালিকানা কিনে নেয় স্যামসাং।

লুপ পে-এর কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে সিনেট জানিয়েছে, হ্যাকাররা প্রতিষ্ঠানটির ম্যাগনেটিক সিকিওর ট্রান্সমিশন (এমএসটি) প্রযুক্তি হ্যাক করতে বেশ আগে থেকেই তৎপর ছিল। সম্প্রতি যুক্তরাষ্ট্রে উন্মুক্ত হওয়া স্যামসাং মোবাইল পেমেন্ট ওয়ালেটে এই প্রযুক্তি ব্যবহার করা হয়েছিল।

অবশ্য হ্যাকাররা লুপ পে-এর করপোরেট নেটওয়ার্ক আক্রমণে সক্ষম হলেও প্রতিষ্ঠানটির পেমেন্ট সিস্টেম এখনো অক্ষত রয়েছে বলে দাবি করেছেন লুপ পে-এর প্রধান নির্বাহী উইল গ্রেইলিন। এই হ্যাকিংয়ের ফলে স্যামসাং মোবাইল পেমেন্ট সিস্টেম কিংবা গ্রাহকদের ব্যক্তিগত তথ্যের কোনোরুপ ক্ষতি হয়নি বলে তিনি জানান।

এ ছাড়া হ্যাকিংয়ের পরও স্যামসাং ডিভাইসে এই মোবাইল পেমেন্ট সার্ভিস চালু যথাসময়েই শুরু হয়েছে বলে লুপ পে-এর পক্ষ থেকে জানানো হয়।

তবে নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞদের মতে, এই হ্যাকিংয়ের ফলে গ্রাহক ভোগান্তির আশঙ্কা একেবারে উড়িয়ে দেয়া যায় না। প্রাথমিক আক্রমণের বেশ কয়েক মাস পর হ্যাকাররা আবার সক্রিয় হয়ে উঠতে পারে।

সিনেট জানিয়েছে, হ্যাকিংয়ের ঘটনাটি বেশ কিছুদিন আগে ঘটলেও চলতি বছরের অগাস্ট মাস পর্যন্ত তা সম্পর্কে জানতেই পারেনি লুপ পে এবং স্যামসাং। হ্যাকিং দল ‘কোডোসো গ্রুপ’-এর কর্মকাণ্ড নিয়ে পৃথক আরেকটি তদন্তে হ্যাকিংয়ের ৫ মাস পর এই ঘটনা উঠে সম্পর্কে জানা গিয়েছে।তাই মাঝের দীর্ঘ সময়ে হ্যাকিং দলটি যে গ্রাহকদের স্পর্শকাতর তথ্য সংগ্রহ করতে পারেনি তা জোর দিয়ে বলা যায়না।

এই একই হ্যাকিং দলটি চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে প্রভাবশালী মার্কিন প্রকাশনা ফোর্বস-এর ওয়েবসাইট হ্যাক করে।

চলতি বছরের অগাস্ট মাসে লুপ পে’র ওই হ্যাকিংয়ের বিষয়ে তদন্ত করতে দুটি ফরেনসিক দল নিয়োগ দিলেও তদন্ত শুরু হওয়ার তিন দিনের মাথায় একটি দলকে ওই কার্যক্রম থেকে অব্যাহতি দেয় লুপ পে। এ ছাড়া হ্যাকিংয়ের ঘটনায় প্রতিষ্ঠানটির পক্ষ থেকে কোনো মামলাও করা হয়নি বলে জানিয়েছে সিনেট।

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন