ই-কমার্স-কুরিয়ার সার্ভিস নিয়ে যে বিষয়গুলো জরুরী

0

মোঃ নাফিজুর রহমান// কুরিয়ার সার্ভিস নিয়ে অনেকেই অনেক সমস্যায় পড়েছেন এবং পড়ছেন। আমিও যে সমস্যায় পড়িনি তা নয়, তবে অন্যদের যেসব সমস্যার কথা শুনলাম তার কাছে আমার গুলো কোন সমস্যাই না। একটু বুঝে শুনে সার্ভিস নিলে অনেক ক্ষেত্রেই এসব সমস্যা এড়ানো যায়। অনেকেই আসলে জানেনই না যে কিভাবে কুরিয়ার সার্ভিস কে যাচাই করতে হয়। আমার মতে যেকোন কুরিয়ার সার্ভিস এর সাথে কাজ করার আগে কয়েকটা জিনিষ অবশ্যই জেনে নিতে হবে এবং ভাল সার্ভিস পাবার গ্যারান্টি নিতে হবে। আমি পারসোনালি সাজেস্ট করছি নিচের বিষয় গুলো যাচাই করে নেয়ার।

১। অবশ্যই ই-কমার্স ব্যবসায়ী প্রতিষ্ঠানের সাথে কাজ করার অভিজ্ঞতা থাকতে হবে। প্রথমেই জিজ্ঞেস করবেন, কোন কোন ই-কমার্স সাইটের সাথে তারা কাজ করছেন। তারা যদি কাজ করে থাকেন তাহলে তারা জানেন ও বুঝেন যে ই-কমারস ব্যবসায়ীদের জন্য কি কি গুরুত্বপূর্ণ। বেশ কিছু কুরিয়ার সার্ভিস রয়েছে যারা ই-কমার্সকে টার্গেট করে মাঠে নেমেছে, এরা আর যাই করুক ই-কমার্স সেক্টরের কাস্টোমার হারাতে চায় না।

২। তাদের সার্ভিস চার্জ কত, ক্যাশ হ্যান্ডেলিং এর কোন চার্জ আছে কিনা। যারা ই-কমারস ব্যবসায় নেমেছেন তারা অবশ্যই জানেন গড়পড়তা কত টাকা সার্ভিস চার্জ হওয়া উচিত। যদি কুরিয়ার বেশী চার্জ চায় তাহলেও সেটা আপনার উপজুক্ত নয়, যদি খুব কম চায় তাহলে সেটাও ভাল সার্ভিস দিবে কিনা সন্দেহ আছে। আমার জানা মতে গড়পড়তা সার্ভিস চার্জ ৫০ টাকা (ঢাকার ভেতরে ক্যাশ অন ডেলিভারি)।

৩। তারা কখন এবং কিভাবে পেমেন্ট রিলিজ করে। পেমেন্ট ঠিকমত রিলিজ করে কিনা। পেমেন্ট রিলিজ করার সময় প্রত্যেকটি পেমেন্ট এর আমাউন্ট উল্লেখ থাকে কিনা। এইগুলা খুবি গুরুত্বপূর্ণ। দরকার পরলে প্রথম এক মাস অল্প সংখ্যক পার্সেল দিয়ে চেক করে দেখুন ঠিকমত পেমেন্ট দেয় কিনা। না দিলে তাদের সার্ভিস বাদ দিন, ই-কমার্স এর জন্য অনেক কুরিয়ার সার্ভিস আছে এদেশে।

৪। ডেলিভারি ম্যানরা কি বখশিশ চায় কিনা আপনার কাস্টোমারের কাছে।

৫। ডেলিভারি ম্যান আপনার কাস্টোমারের সাথে ক্যামন ব্যবহার করছে সেটাও যাচাই করে নিন। দরকার পরলে নিজের পরিচিত মানুষকে পার্সেল পাঠিয়ে দেখুন সার্ভিস কেমন।

৬। কোন সমস্যা হলে কত দ্রুত রেস্পন্স করে সেটা যাচাই করে দেখুন।

৭। কতদিন ধরে ব্যবসা করছে সেটাও দেখতে হবে, নতুন কোম্পানিকে সহজে বিশ্বাস করতে যাবেন না।

৮। তারা যাদের সাথে কাজ করছে তাদের কাছে গিয়ে জিজ্ঞেস করুন কেমন সার্ভিস পাচ্ছে।

৯। ডেলিভারি হবার সাথে সাথে আপনি জানতে পারছেন কিনা সেটাও জিজ্ঞেস করে নিন, কিভাবে আপনাকে জানাবে সেটাও জেনে নিন।

১০। কত দিনের মধ্যে ডেলিভারি করে সেটা জেনে নিন এবং প্রথমে ১/২ টা পার্সেল দিয়ে যাচাই করে দেখুন।

১১। একসাথে কয়েকটা কোম্পানির সাথে কাজ করুন এবং যাচাই করুন কোনটার সার্ভিস ভাল। যেটার সার্ভিস ভাল সেটার কাছে যাবেন, এক্ষেত্রে ব্যক্তিগত সম্পর্ক এসব দেখবেন না। আপনি ব্যবসা করতে এসেছেন কারো সাথে প্রেম-ভালোবাসা করতে নয়।

১২। এসব দেখেশুনে সার্ভিস নেবার পরেও যদি সমস্যায় পরেন তাহলে নির্লজ্জের মত কমপ্লেইন করুন। এটা ছাড়া উপায় নেই।

১৩। রিটার্ন আসলে কিভাবে দেবে, চার্জ কাটবে কিনা, প্রোডাক্ট ঠিকমত বুঝিয়ে দিবে কিনা, এগুলো শিওর হয়ে নিন।

১৪। কাস্টোমার রিটার্ন করতে চাইলে ডেলিভারি ম্যান আপনাকে কনফার্ম করে আপনার অনুমতি নিয়ে রিটার্ন নেয় কিনা সেটা যাচাই করুন।

১৫। তাদের লোকবল কেমন, আপনার অর্ডারগুলো প্রসেস করার ক্ষমতা তাদের আছে কিনা সেটাও বিবেচ্য বিষয়।

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন