ইউটিউবে এবার টিভি

ইউটিউব ফেব্রুয়ারি মাসে তাদের স্ট্রিমিং টিভি পরিসেবার কথা জানিয়েছিল। আর এখন আনুষ্ঠানিকভাবে এই পরিসেবা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচিত বাজারে চালু করা হয়েছে। নিউইয়র্ক, লস অ্যাঞ্জেলস, বে এরিয়া, শিকাগো এবং ফিলাডেলফিয়ায় ৩৫ ডলার সাবস্ক্রিপশন ফিতে এই পরিসেবা উন্মুক্ত করা হয়েছে। বিনিময়ে তিনি ৫০টির বেশি চ্যানেল দেখতে পাবেন।
ইউটিউব টিভির ঘোষণা দেওয়া হয়েছিল গত ফেব্রুয়ারিতে। প্রাথমিকভাবে এবিসি, সিবিসি, ফক্স, এনবিসি, ইএসপিএনসহ বেশ কয়েকটি চ্যানেল দেখা যাবে বলে জানানো হয়েছিল। গত বুধবার থেকে শুরু হওয়া এই সেবার মূল আকর্ষণ থাকছে বিবিসি আমেরিকা এবং আইএফসি চ্যানেলসহ এএমসি নেটওয়ার্কস।

গ্রাহকদের জন্য স্বস্তির বিষয় হলো, সেবাটি ৩০ দিনের জন্য বিনা মূল্যে পরখ করে দেখার সুবিধা থাকছে। এ ছাড়া স্মার্টফোন থেকেও ইউটিউব টিভি ব্যবহার করা যাবে। তবে এ ক্ষেত্রে কিছু সুবিধা শিথিল করা হয়েছে।

নতুন প্রজন্মের দর্শকদের জন্য ইউটিউব টিভি সেবাটি চমকপ্রদ হবে। তাই বলে এতে প্রচলিত টিভি প্রয়োজনীয়তা কমে যাবে বলে মনে করছেন না অনেকেই। কারণ মাসে ৩৫ ডলারের বিনিময়ে সেবাটি গ্রহণ করতে গিয়ে প্রায় ৫০ ডলার মূল্যের ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট ব্যয় করতে হবে, যা অনেকের কাছেই বেশ ব্যয়বহুল মনে হতে পারে।