নিউজ ডেস্ক, টেকজুম ডটটিভি// অ্যান্ড্রয়েড সিস্টেমের সবচেয়ে বড় দুর্বলতা হয়ে দেখা দিয়েছিল ‘স্ট্রেটফ্রাইট’। অ্যান্ড্রয়েড সংস্করণ ২.২ থেকে শুরু করে ৫.১ পর্যন্ত স্ট্রেটফ্রাইট বিশ্বের ১০০ কোটি স্মার্টফোনকে নিরাপত্তাহীনতার মুখে ফেলে দেয়। টেকরাডারের এক প্রতিবেদনে বলা হয়, বর্তমানে এ অবস্থা আরো শোচনীয় হয়ে পড়েছে।

বিশেষজ্ঞ জানান, স্ট্রেটফ্রাইট ২.০ প্রবেশ করতে পারে এমএমএস মেসেজের মাধ্যমে। এটা সাধারণত এমপি৩ এবং এমপি৪ ফাইলের মাধ্যমে চলাচল করে। কাজেই আপাত দৃষ্টিতে এসব ফাইল এড়িয়ে যাওয়ার মাধ্যমে এটা থেকে মুক্তি মিলবে না।

বিশেষজ্ঞদের মতে, গুগলের এটা সমাধান করা উচিত কিভাবে চলাচল করে, কি কার্যক্রম চালায়। কারণ, পরবর্তীতে আবার কোনো নিরাপত্তার হুমকি দেখা দিলে তা নিশ্চয়ই আরো মারাত্মক আকারে হামলা চালাবে।

অনেকেই অভিযোগ করেন, এক গবেষক প্রথমে নিরাপত্তাব্যবস্থায় এই ফোকরটি খুঁজে পান। কিন্তু গুগলকে এর সম্পর্কে বহু আগে থেকে জানানো হলেও তা গায়ে মাখেনি। তবে মিডিয়া এর পেছনে লেগে থাকার পর গুগল জানায়, বিষয়টি তারা খতিয়ে দেখবে। গুগল আরো বলে, ঝামেলামুক্ত অ্যান্ড্রয়েড সংস্করণ তারা নেক্সাসের মাধ্যমে বাজারে ছাড়বে। নেক্সাস নির্মাতাদের বলা হলো, তারা যেন সমস্যা দূর করে সংস্করণটি প্রস্তুত করে। কিন্তু এর পরও স্ট্রেটফ্রাইট থেকেই গেলো। এটা জানান পর আবারো না শোনার ভান করে থাকলো গুগল।

এদিক থেকে পুরোই ভিন্ন অ্যাপল। একবার স্টিভ জবস এক ডি৫ কনফারেন্সে বলেছিলেন, অ্যাপল নির্মাতাদের সঙ্গে এমন সম্পর্ক স্থাপন করেছে যে, অ্যাপলের চাহিদা ও নির্মাতাদের আন্তরিকতার মাঝে কোনো ফারাক নেই। অ্যাপল যেভাবে চায়, নির্মাতারা সেভাবেই তাদের স্মার্টফোন তৈরি করে।

গুগল এখন ভিন্ন অবস্থায় রয়েছে। বিশেষজ্ঞদের মতে, গুগল ধীরে ধীরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছে অ্যান্ড্রয়েডের ওপর। এমন চলতে থাকলে বিশ্বের সর্বাধিক জনপ্রিয় স্মার্টফোন অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েডের নিরাপত্তাহীন হয়ে পড়বে।
সূত্র : টাইমস অব ইন্ডিয়া

মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন